kalerkantho

বুধবার । ২৮ বৈশাখ ১৪২৮। ১১ মে ২০২১। ২৮ রমজান ১৪৪২

মোল্লাহাটে দুই পক্ষের সংঘর্ষ

'আমাদের ৬ ঘর ভাঙছে, আমি নেতৃত্ব দিয়ে ওদের ৯ ঘর ভাঙছি'

মোল্লাহাট (বাগেরহাট) প্রতিনিধি   

২১ এপ্রিল, ২০২১ ২০:৫০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



'আমাদের ৬ ঘর ভাঙছে, আমি নেতৃত্ব দিয়ে ওদের ৯ ঘর ভাঙছি'

বাগেরহাটের মোল্লাহাটের হাঁড়িদাহ গ্রামে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষে ১০ জন আহত হয়েছে। এ সময় উভয় পক্ষের ২০টি বসতঘর ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। উপজেলার হাড়িদাহ গ্রামে রশিদ ফকির ও আবেদ মোল্লা গ্রুপের মধ্যে মঙ্গলবার রাত এবং আজ বুধবার দিনে দফায় দফায় এ সংঘর্ষ হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ওই এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

রশিদ ফকিরের গ্রুপের ইমদাদ মোল্লা বলেন, 'আমাদের পক্ষের ছয়টি ঘর ভাঙচুর করেছে আবেদ মোল্লার লোকেরা। আর আমি নিজে নেতৃত্ব দিয়ে এবং নিজ হাতে আবেদ মোল্লার দলের ৯টি বাড়ি-ঘর ভাঙছি।' ইমদাদ মোল্লা আরো বলেন, এতে মামলা হবে জানি, এসব মামলায় কী হবে? মামলা হলে দুই পক্ষেরই হবে।

প্রতিপক্ষ আবেদ মোল্লা গ্রুপের আব্দুল মান্নান শেখের মেয়ে সাজেদা আক্তার জানান, তার পিতা বাইসাইকেলের ব্যবসা করেন। তাদের বাড়ি-ঘর, ফ্রিজ ও আসবাবপত্র ভাঙচুরসহ নগদ টাকা ও ২০টি সাইকেলসহ মূল্যবান সব কিছু লুটে নিয়ে গেছে ইমদাদসহ ২০-২৫ জন।

আবেদ মোল্লার স্ত্রী বলেন, রশিদের গ্রুপের ইমদাদের নেতৃত্বে আমাদের বসতঘর, বৈদ্যুতিক মিটার, ফ্রিজসহ যাবতীয় আসবাবপত্র ভাঙচুর ও লুট করেছে।

মোল্লাহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী গোলাম কবীর জানান, এলাকার শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষার জন্য দলনেতা আবেদ মোল্লাকে আটক করা হয়েছে। অন্য পক্ষের লোকদের পুলিশ আটকের জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সেখানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।



সাতদিনের সেরা