kalerkantho

বুধবার । ২৯ বৈশাখ ১৪২৮। ১২ মে ২০২১। ২৯ রমজান ১৪৪২

করোনা থেকে মুক্তি পেতে মসজিদে দোয়ার আহ্বান জানালেন আইনমন্ত্রী

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি   

১৭ এপ্রিল, ২০২১ ২১:৫০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



করোনা থেকে মুক্তি পেতে মসজিদে দোয়ার আহ্বান জানালেন আইনমন্ত্রী

বিশ্ব এক ক্রান্তিকাল অতিক্রম করছে উল্লেখ করে আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক করোনা মহামারী থেকে মুক্তি পেতে মসজিদে মসজিদে দোয়া করার আহ্বান জানিয়েছেন।

আজ শনিবার বিকেলে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে উপজেলার বিভিন্ন মসজিদের ইমাম ও খতিবদের সঙ্গে ভার্চুয়্যালি মতবিনিময় সভায় মন্ত্রী এ আহ্বান জানান। মন্ত্রী ঢাকা থেকে ওই মতবিনিময় সভায় অংশ নেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী বলেন, এই রমজান মাসে আমরা আল্লাহর কাছে অত্যন্ত আন্তরিকতার সাথে ক্ষমা প্রার্থনা করা উচিত। একমাত্র আল্লাহই আমাদেরকে এই বিপদ থেকে পরিত্রাণ দিতে পারেন। আল্লাহই আমাদের একমাত্র ভরসা। আল্লাহ আমাদেরকে ক্ষমা করতে পারেন মাফ করতে পারেন।

মতবিনিময় সভায় অন্যান্যের মধ্যে আখাউড়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. আবুল কাসেম ভূইয়া, পৌর মেয়র মো. তাকজিল খলিফা কাজল, উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মোহাম্মদ নূর-এ আলম, উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক মো. জয়নাল আবেদীন, আখাউড়া থানার ওসি মো. মিজানুর রহমান, মাওলানা আসয়াদ আল হাবিব, মুফতি আসয়াদুজ্জামান, মুফতি কাজি কেফায়েতুল্লাহ মাহমুদী, কাজি মাঈনউদ্দিন, মাওলানা আবু আব্দুল্লাহ, হাফেজ নুরুল ইসলাম বাবুল, মাওলানা হাবিবুল্লাহ বাহার, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক আব্দুল মমিন বাবুল, উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি সাহাব উদ্দিন বেগ শাপলু, সাধারণ সম্পাদক শাখাওয়াত হোসেন নয়ন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মন্ত্রীর বক্তব্যের পরে করোনা মহামারি থেকে থেকে মুক্তির জন্য মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের দরবারে মোনাজাত পরিচালনা করেন মাওলানা আসয়াদ আল হাবিব।

এ সময় মন্ত্রী আরো বলেন, কভিড মহামারির কারণে সব কিছু যেন থমকে আছে। এ বৈশ্বিক মহামারি কিন্তু বাংলাদেশকেও ছাড়ে নাই। গত বছর ২৫ মার্চ থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ছুটি ঘোষণা করায় আমরা করোনা মহামারির যে আঘাত সেটা বুঝতে পারি নাই। তখন আমাদের করোনা সংক্রমণের হার ছিল কম। মৃত্যুর হার ছিল কম।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অত্যন্ত দুরদর্শিতার সঙ্গে করোনা ভ্যাকসিনের ব্যবস্থা করেন। ভ্যাকসিন নেওয়া শুরু হলে আমাদের ধারণা হয়েছিল এ মহমামারি হয়তো পেছনে ফেলে এসেছি। কিন্তু দুঃখের হলেও সত্য আজকে বাংলাদেশে রেকর্ড পরিমাণ সংক্রমণ রোগী পাওয়া যাচ্ছে। আরো দুঃখের বিষয় গত শুক্রবার এক বছর এক মাসের মধ্যে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু তার হার আমরা দেখেছি।



সাতদিনের সেরা