kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৭ বৈশাখ ১৪২৮। ১০ মে ২০২১। ২৭ রমজান ১৪৪২

মেডিক্যালে না পড়েই হয়েছেন ডাক্তার, এখন তিনি কারাগারে

কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি   

১৭ এপ্রিল, ২০২১ ২০:২৩ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



মেডিক্যালে না পড়েই হয়েছেন ডাক্তার, এখন তিনি কারাগারে

কেশবপুরে ফার্মাসিস্ট রেজাউল ইসলাম মিঠু ডাক্তার সেজে রোগীদের সাথে প্রতারণা করার অভিযোগে ভ্রাম্যমাণ আদালত তাকে ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছে। গতকাল শুক্রবার বিকেলে হাসপাতাল মোড়ের সোহান ফার্মেসিতে রোগী দেখার সময় উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এম এম আরাফাত হোসেন ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে তাকে ওই কারাদণ্ড প্রদান করেন।

ফার্মাসিস্ট রেজাউল ইসলাম মিঠু উপজেলার ধর্মপুর গ্রামের আব্দুল খালেক সরদারের ছেলে। তার বিরুদ্ধে মেডিক্যাল কলেজে পড়াশোনা না করেই নামের আগে ডাক্তার লেখা, বিএমডিসির রেজিস্ট্রেশন না থাকাসহ এমবিবিএস ডাক্তার পরিচয়ে রোগীদের সঙ্গে প্রতারণা করে আসার অভিযোগ ওঠে। এ ছাড়া রেজাউল ইসলাম মিঠু একজন ফার্মাসিস্ট হয়েও শিশু বিশেষজ্ঞ সেজে প্রতিদিন রোগী দেখছিলেন কেশবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স মোড় ও সাগরদাঁড়ির চিংড়া বাজারে।

বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী অফিসার এম এম আরাফাত হোসেনের জানতে পেরে শুক্রবার বিকেলে কেশবপুর শহরের হাসপাতাল মোড়ের সোহান ফার্মেসিতে অভিযান পরিচালনা করে ফার্মাসিস্ট রেজাউল ইসলাম মিঠুকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন।



সাতদিনের সেরা