kalerkantho

মঙ্গলবার । ৮ আষাঢ় ১৪২৮। ২২ জুন ২০২১। ১০ জিলকদ ১৪৪২

লকডাউনে পিকআপে ঘরে ফেরা, পথেই প্রাণ গেল তাদের

সাতক্ষীর প্রতিনিধি   

১৭ এপ্রিল, ২০২১ ১১:২৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



লকডাউনে পিকআপে ঘরে ফেরা, পথেই প্রাণ গেল তাদের

সাতক্ষীরায় ট্রাক-পিকআপের সংঘর্ষ দুই শ্রমিক নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরো ২২ জন। শনিবার (১৭ এপ্রিল) ভোর সাড়ে ৩টার দিকে তালা উপজেলাধীন সাতক্ষীরা-খুলনা মহাসড়কের সুভাষিনি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহতদের সাতক্ষীরা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল, সদর হাসপাতাল ও বিভিন্ন ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে।

নিহতরা হলেন সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ উপজেলার জাফরপুর গ্রামের আবু বাক্কারের ছেলে মুন্না (৩৫) ও একই এলাকার মৃত বসার গাজীর জামাতা ও আশাশুনি উপজলার বড়দল গ্রামর শফিকুল ইসলাম (৫০)।

সাতক্ষীরা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন কালীগঞ্জ উপজলার তারালী গ্রামর কষ্ণপদ মণ্ডলের শ্বশুর বিশ্বনাথ মণ্ডল জানান, গত ৩ এপ্রিল স্থানীয় এক শ্রমিক সরদারের মাধ্যমে এলাকার ২৮ জন মাদারীপুরে এক ঠিকাদারের কাজ করত যায়। করোনা পরিস্থিতির কারণ কাজ বন্ধ থাকায় তারা ২৪ জন একসাথ একটি পিকআপে বাড়ি ফিরছিলেন। শনিবার ভোর ৩টার দিক তাদের বহনকারী পিকআপটি তালা উপজলার সুভাষিনি কলেজ এলাকায় আসার পরপরই বিপরীত দিক থেকে আসা একটি দ্রুতগামী ট্রাকের সঙ্গে মুখামুখি সংঘর্ষ হয়। এতে পিকআপটি চারবার উল্টিয়ে বিলের মধ্যে পড়ে যায়। ঘটনাস্থলেই মারা যায় শফিকুল ও মুন্না।

সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগর চিকিৎসক ডা. ডা. রওশান গাইন জানান, পাঁচজনের প্রচণ্ড বমি হওয়ায় তাদের সাতক্ষীরা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে। বাকি আটজনের স্বজনরা করোনার ভয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে না জানিয়েই কৌশলে বাড়িসহ বিভিন্ন ক্লিনিকে ভর্তি করেছে।

তালা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মেহেদী রাসেল জানান, নিহত দুজনের লাশ চুকনগর হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়িতে রয়েছে। লাশ থানায় আনার জন্য পুলিশ পাঠানা হয়েছে।



সাতদিনের সেরা