kalerkantho

বুধবার । ২৯ বৈশাখ ১৪২৮। ১২ মে ২০২১। ২৯ রমজান ১৪৪২

লুডু থেকে নির্বাচনী সহিংসতা, হাসপাতালে আহতদের ওপর দ্বিতীয় হামলা, নিহত ১

শিবচর (মাদারীপুর) প্রতিনিধি    

১৫ এপ্রিল, ২০২১ ১৪:১২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



লুডু থেকে নির্বাচনী সহিংসতা, হাসপাতালে আহতদের ওপর দ্বিতীয় হামলা, নিহত ১

গুরুতর আহত ইলিয়াছ ঢালী (৪০) পরে মারা যান

মাদারীপুরের শিবচরে বাজিতে লুডু খেলা নিয়ে সংঘর্ষ গড়াল নির্বাচনী সহিসংতায়। হাসপাতালে এক মুমূর্ষু রোগীকে নেওয়া হলে তার পক্ষের ওপর হামলা চালানো হয়। সেখান থেকে তাদের তাড়িয়ে দেয় প্রতিপক্ষ। গুরুতর আহত ইলিয়াছ ঢালীকে (৪০) অন্য হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান। এ ঘটনায় আরো পাঁচজন আহত হন। সংঘর্ষের ঘটনায় চারজনকে আটক করা হয়েছে। 

স্থানীয় ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, গতকাল বুধবার বিকেলে জেলার শিবচর উপজেলার কাদিরপুর ইউনিয়নের ডিক্রিরচর এলাকার ইলিয়াছ ঢালী ও জলীল মোল্লার ছেলে শাহিন পানীয় বাজিতে মোবাইল ফোনে লুডু খেলেন। বাজিতে ইলিয়াছ জয়লাভ করেন। আগে থেকেই শাহিনের কাছে ইলিয়াছ ছয় শ টাকা পেতেন। বাজিতে জেতা পানীয়ের সাথে পাওনা টাকার হিসেব নিয়ে একপর্যায়ে দুজনের মধ্যে হাতাহাতি শুরু হয়। সন্ধ্যার পর শাহিন তার বংশীয় লোকজন নিয়ে ইলিয়াছ ও তার সাথে থাকা লোকদের ওপর হামলা চালান। এতে উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ লাগে এবং একে ৬-৭ জন আহত হন। এতে ইলিয়াছ গুরুতর আহত হন। এ ছাড়াও উভয় পক্ষের মর্জিনা বেগম, মজিবর মোল্লা, রুবেল মোল্লা, ইলিয়াছ ঢালী, মজিবর ঢালীসহ ৬-৭ জন আহত হন।

পরে আহতদের উদ্ধার করে শিবচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। গুরুতর আহত ইলিয়াছ ও তাদের লোকজনকে নিয়ে শিবচর হাসপাতালে গেলে হামলাকারীরা আবারো হাসপাতালেই আহতদের ওপর হামলা চালান। পরে হাসপাতালে চিকিৎসা না পেয়ে ইলিয়াস ঢালীকে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে নেওয়ার পর মধ্যরাতে তার মৃত্যু হয়। 

ঘটনার সূত্রপাত লুডু খেলা নিয়ে হলেও পরে তা ইউপি নির্বাচনের দলাদলিতে রূপ নেয়। স্থগিত হওয়া ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ঢালী বংশের বি এম জাহাঙ্গীর বেপারীর পক্ষ ও মোল্লা বংশের মো. শাহালম তালুকদার চানমিয়ার পক্ষ সংঘর্ষে জড়ায়। বর্তমানে উভয় পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা থাকলেও এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

শিবচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মিরাজ হোসেন বলেন, এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। লাশ মর্গে পাঠানো হয়েছে। এক পক্ষের মামলা হয়েছে। অপর পক্ষের মামলা প্রক্রিয়াধীন। 



সাতদিনের সেরা