kalerkantho

শুক্রবার। ৩১ বৈশাখ ১৪২৮। ১৪ মে ২০২১। ০২ শাওয়াল ১৪৪২

দোকানের মালিকানা নিয়ে দুই বোনের কাণ্ড!

শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি   

১৪ এপ্রিল, ২০২১ ১৬:৪৯ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



দোকানের মালিকানা নিয়ে দুই বোনের কাণ্ড!

বাগেরহাটের শরণখোলায় দুটি দোকানের সিসি ক্যামেরা ও বিদ্যুতের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে লুটপাটের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় আজ বুধবার দুপুরে ক্ষতিগ্রস্ত দুই ব্যবসায়ী তাদের ক্যাশবাক্স ভেঙে নগদ টাকা ও মূল্যবান মালামাল লুটসহ প্রায় ৮লাখ টাকার ক্ষতি উল্লেখ করে শরণখোলা থানায় এজাহার দাখিল করেছেন।

গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে উপজেলা সদরের পাঁচরাস্তা বাদল চত্বরের বাবুল সুপার মার্কেটের মেসার্স হৃদয় গার্মেন্টস অ্যান্ড কসমেটিক্স এবং মুক্তা ডেন্টার ক্লিনিকে এ হামলা ও লুটপাটের ঘটনা ঘটে। মার্কেটের মালিকানা নিয়ে দুই বোনের দ্বন্দ্বের জেরে ব্যবসায়ীদের বের করে দিতে এক অংশীদার লোক ভাড়া করে এ তাণ্ডব চালান বলে অভিযোগ ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের।

হামলাকারীরা লুটপাটের পর দোকান দুটি বন্ধ করেন দেয়। ঘটনা জানতে পেরে থানা পুলিশ, সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান মিলন ও বাজার কমিটির সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং বন্ধ দোকান খুলে দেন। এ ঘটনায় বিলাশ রায় কালু বাদী হয়ে পাঁচজনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরো ১০-১২জনের নামে এজাহারটি দাখিল করেন।

এজাহার সূত্রে জানা যায়, ব্যবসায়ী বিলাস রায় কালু এবং দন্ত চিকিৎসক আবু সালেহ ২০১৮ সালে বাবুল সুপার মার্কেটের দুটি ঘর ভাড়া নিয়ে প্রায় তিন বছর ধরে ব্যবসা করে আসছেন। কিন্তু এর দুই বছরের মাথায় মার্কেট মালিক জাহাঙ্গীর কবির বাবুল মারা যান। তার মৃত্যুর পর মার্কেটেরে অংশিদার তার দুই মেয়ে তানিয়া আক্তার সাথী (৩৯) ও সাদিয়া সুলতানা বিথী (২৩) হেবা দলিলবন্টন অনুযায়ী সমান অংশে দোকান ভাড়া দিয়ে ভোগদখল করে আসছেন। অথচ বড় বোন তানিয়া আক্তার সাথী মার্কেটের সমস্ত সম্পত্তি ও দোকান তার বলে দাবি করেন। ছোট বোন সাদিয়া সুলতানা বিথীর ওই মার্কেটের কোনো অংশিদারী নেই বলে তাকে বিতাড়িত করার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হন।

ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের ঘর মালিক সাদিয়া সুলতানা বিথী জানান, তার অংশের ভাড়াটিয়াদের নামাতে বড় বোন সাথী মাস্তান ভাড়া করে আনেন। তার বোনের নির্দেশে ভাড়া করা মাস্তান রাজিব হাওলাদার, মাসুম খান, রেজাউল মৃধা, রায়হান জোমাদ্দার, কবির তালুকদারসহ ১০-১২ জন সন্ত্রাসী তাদের দোকানে হামলা লুটপাট চালায়।

ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবাসায়ী বিলাস রায় কালু জানান, মার্কেটের অন্য অংশের মালিক তানিয়া আক্তার সাথীর নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী তার দোকানের সিসি ক্যামেরা ও বিদ্যুতের লাইন কেটে দোকানে হামলা চালায়। এ সময় দোকানের কর্মচারীদের মারধর করে ক্যাশবাক্স ভেঙে সাড়ে ছয় লাখ টাকাসহ মূল্যবান মালামাল লুটে নেয়। 

অপর ব্যবাসীয় আবু সালেহ জানান, তার ক্লিনিকে হামলা চালিয়ে ক্যাশ ভেঙে ৯৬ হাজার টাকা নিয়ে যায়। সাথী নিয়ে উপস্থিত থেকে ভাড়াটিয়া মাস্তান দিয়ে এই তাণ্ডব চালিয়েছে।

শরণখোলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাইদুর রহমান জানান, ঘটনার পর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, ইউপি চেয়ারম্যান ও বাজার কমিটির সাধারণ সম্পাদকের মধ্যস্থতায় দোকান খুলে দেওয়া হয়েছে। এজাহারে উল্লেখিত অভিযোগ তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।



সাতদিনের সেরা