kalerkantho

রবিবার । ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮। ১৩ জুন ২০২১। ১ জিলকদ ১৪৪২

মনে প্রশান্তি এনে দেয় দৃষ্টি নন্দন সূর্যমুখী বাগান

গফরগাঁও (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি   

১২ এপ্রিল, ২০২১ ২২:০৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মনে প্রশান্তি এনে দেয় দৃষ্টি নন্দন সূর্যমুখী বাগান

প্রায় ছয় লাখ মানুষ অধ্যুষিত ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলায় বিনোদনের কোনো জায়গা নেই। বিনোদন প্রিয় মানুষ ঈদ-বিভিন্ন পর্বে নিতান্ত বাধ্য হয়ে ব্রহ্মপুত্র নদের ওপর নির্মিত পৌর শহরের আলতাফ গোলন্দাজ সেতু, পাঁচবাগ ইউনিয়নের খুরশিদ মহল সেতু ও টাঙ্গাব ইউনিয়নের বানার নদীর ওপর সদ্য নির্মিত সেতু ভ্রমণ করে মনের খায়েশ মেটান। তবে সম্প্রতি পৌর শহরের ব্রহ্মপুত্র চরে দুই যুবলীগ নেতার সূর্যমুখী ফুলের বাগান বিনোদন প্রত্যাশী মানুষের মন জয় করে নিয়েছে। প্রতিদিন অসংখ্য মানুষ পরিবারের সদস্যদের নিয়ে সূর্যমুখী বাগান ঘুরে-ছবি তুলে আনন্দ নিতে আসেন। স্থানীয় সংসদ সদস্য ফাহমী গোলন্দাজ বাবেল রবিবার বিকালে দলীয় নেতৃবৃন্দ নিয়ে বাগানটি ঘুরে সাধুবাদ জানিয়েছেন।

জানা যায়, পৌর যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক তাজমুন আহমেদ ও যুবলীগ নেতা মফিদুল ইসলাম টিপুর যৌথ উদ্যোগে পৌর শহরের ব্রহ্মপুত্র চরে প্রায় দুই হেক্টর জমিতে সূর্যমুখী চাষ করেছেন। সঙ্গে ফুল থেকে মধু আহরণে মৌমাছির দুইটি কলোনি স্থাপন করেছেন। সূর্যমুখী বাগান ঘুরতে আসা মানুষ মধু আহরণের চমৎকার পদ্ধতি দেখে দারুন আনন্দ পাচ্ছেন।

পৌর যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক তাজমুন আহমেদ বলেন, প্রতিদিন বিকেলে লোকজন পরিবারের সদস্যদের নিয়ে ঘুরতে আসেন। দাঁড়িয়ে ছবি তুলে ফেসবুকে দেন। সবাই আনন্দ নিয়ে ফিরে যান। বিষয়টি আমাদের বেশ আনন্দ দিচ্ছে। শুরুতে দুই হেক্টর জমিতে সূর্যমুখী চাষ ও মধু আহরণ করেছি। পলিযুক্ত বেলে মাটি বলে ফলন খুব ভালো হয়েছে। ইচ্ছে আছে আরো বেশী জমিতে সূর্যমুখী চাষ করার।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন বলেন, সূর্যমুখী তেলের দাম অনেক বেশী। সাধারণ সয়াবিন তেল যেখানে ১০০/১২০ টাকা লিটার, সেখানে সূর্যমুখী তেল ৩০০/৩৫০ টাকা লিটার। চরে পলিযুক্ত বেলে মাটি বলে খুব ভালো উৎপাদন হয়েছে। তা ছাড়া সাথে মধু আহরণে অতিরিক্ত লাভ। আশা করা যায় সার্বিক ভাবে উদ্যোগটি লাভজনক হবে।



সাতদিনের সেরা