kalerkantho

রবিবার । ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮। ১৩ জুন ২০২১। ১ জিলকদ ১৪৪২

উল্লাপাড়ায় কালবৈশাখীর তাণ্ডব, লণ্ডভণ্ড ঘর-বাড়ি

উল্লাপাড়া (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি   

১২ এপ্রিল, ২০২১ ২০:১৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



উল্লাপাড়ায় কালবৈশাখীর তাণ্ডব, লণ্ডভণ্ড ঘর-বাড়ি

সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় কালবৈশাখী ঝড়ে ঘর-বাড়ি ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান লণ্ডভণ্ড করে দিয়ে গেছে। এতে বিদ্যুৎ লাইন বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। সঙ্গে ৩২০ হেক্টর জমির বোরো ধানেরও ক্ষতি রয়েছে। রবিবার সন্ধ্যায় দুই দফা কালবৈশাখী ঝড়ে এমন ক্ষতি হয়েছে।

জানা গেছে, উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে প্রায় শতাধিক ঘর-বাড়ি ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান লণ্ডভণ্ড করে ভেঙে ফেলে দিয়েছে। উপজেলার উধুনিয়া ইউনিয়নের গজাইল গ্রাম বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ওই গ্রামের গজাইল অনার্স কলেজের টিন শেড একাডেমিক ভবন ভেঙে চুরমার হয়ে গেছে। তা ছাড়াও গ্রামে ১৬টি ঘর ভেঙে ফেলেছে বলে জানান গজাইল কলেজের অধ্যাপক মো. মনজুরুল রহমান। 

কালবৈশাখী ঝড়ে উপজেলার শতাধিক গ্রামের প্রায় ১২ কিলোমিটার বিদ্যুৎ লাইন বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। ১৬টি বিদ্যুতের খুঁটি ভেঙে গিয়ে প্রায় ৮ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে। বিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ লাইনের দ্রুত মেরামতের কাজ চলছে। ক্ষতিগ্রস্ত বিদ্যুৎ লাইন মেরামত করতে দুই দিন সময় লাগবে বলে জানা গেছে। ওই ঝড়ে উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের প্রায় ৩২০ হেক্টর বোরো ধান ক্ষতির মুখে পড়েছে। এর মধ্যে প্রায় ১৮ শতাংশ বোরো ধানের সম্পূর্ণ ক্ষতি হয়েছে ।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সুবর্ণা ইয়াসমিন জানান, রবিবারের ঝড়ে প্রায় ৩২০ হেক্টর বোরো ধান ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তার মধ্যে ১৮ শতাংশ সম্পূর্ণ ক্ষতিগ্রস্ত এবং বাকিটা আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

সিরাজগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর জেনারেল ম্যানেজার রবেন্দ্র চন্দ্র রায় জানান, ঝড়ে অত্র সমিতির বিভিন্ন এলাকায় প্রায় ১২ কিলোমিটার বিদ্যুৎ লাইন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ১৬টি বিদ্যুৎ খুঁটি ভেঙে প্রায় ৮ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত লাইনের মধ্যে প্রায় ৮০ শতাংশ বিদ্যুৎ লাইন মেরামত করা হয়েছে। বাকি লাইনের মেরামতের কাজ চলছে।



সাতদিনের সেরা