kalerkantho

শুক্রবার। ৩১ বৈশাখ ১৪২৮। ১৪ মে ২০২১। ০২ শাওয়াল ১৪৪২

প্রেমের ফাঁদে ছেলেদের অপহরণ করাই এদের কাজ!

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি   

১১ এপ্রিল, ২০২১ ১৮:১৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



প্রেমের ফাঁদে ছেলেদের অপহরণ করাই এদের কাজ!

প্রেমের ফাঁদে ফেলে প্রেমিককে অপহরণ করে মুক্তিপণ আদায়ের অভিযোগে কথিত প্রেমিকাসহ অপহরণচক্রের তিন সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-১২। একই সঙ্গে র‌্যাব অপহৃত ব্যবসায়ী রামচন্দ্র সাহাকেও উদ্ধার করেছে। উদ্ধারকৃত রামচন্দ্র সাহার বাড়ি বগুড়া জেলার গাবতলী থানার নেপালতলী গ্রামে।

র‌্যাব-১২ এর মিডিয়া অফিসার সহকারী পুলিশ সুপার মুহাম্মদ মহিউদ্দিন মিরাজ জানান, বগুড়ায় চাকরির সুবাদে সোসিও ইকোনমিক ব্যাংকিং অ্যাসোসিয়েশন (সেবা) বগুড়া শাখায় কর্মরত শারমিন খাতুন (২১) বগুড়ার ব্যবসায়ী রামচন্দ্র সাহার সঙ্গে প্রতারণার অংশ হিসেবে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে। রামচন্দ্র সাহার দুর্বলতার সুযোগ নিয়ে বিভিন্ন সময় সে তার নিকট কাছ থেকে আর্থিক সহায়তাও নিয়েছেন। পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী গত ৭ এপ্রিল আসামি শারমিন খাতুন একান্ত সাক্ষাৎ এবং তার পাওনা টাকা পরিশোধের আশ্বাস দিয়ে ব্যবসায়ী রাম চন্দ্র সাহাকে সিরাজগঞ্জ আসতে বলে। এদিন রাম চন্দ্র সাহা সিরাজগঞ্জে আসলে শারমিন তাকে কৌশলে বেলকুচি থানার চর নবীপুর একটি বাড়িতে নিয়ে যায়। এই বাড়িতে পূর্ব থেকেই অপহরণচক্রের অপর দুই সহযোগী অপেক্ষা করছিল। তারা রাম চন্দ্র সাহার হাত-পা বেঁধে রাখে এবং অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে। 

পরে তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোন থেকে তার স্ত্রীকে ফোন করে ২০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। ধারণা করা হচ্ছে- এই চক্রটি দীর্ঘদিন ধরে মানুষকে বিভিন্নভাবে প্রতারণার ফাঁদে ফেলে মুক্তিপণ আদায় করে আসছিল। 

গ্রেপ্তারকৃতরা হচ্ছেন বেলকুচি থানার দূলরা খালী পেরীর মোড় এলাকার শারমিন খাতুন, সিরাজগঞ্জ সদর থানার খোকশাবাড়ী প্রামানিক পাড়া মহল্লা গ্রামের সাইফুল ইসলাম এবং মরিয়ম বেগম। তাদের বিরুদ্ধে বেলকুচি থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।



সাতদিনের সেরা