kalerkantho

শুক্রবার। ৩১ বৈশাখ ১৪২৮। ১৪ মে ২০২১। ০২ শাওয়াল ১৪৪২

দুই বন্ধু ছিল একই রুমে, সকালে উদ্ধার একটি লাশ!

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি   

১০ এপ্রিল, ২০২১ ১৯:৪৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দুই বন্ধু ছিল একই রুমে, সকালে উদ্ধার একটি লাশ!

সাতক্ষীরায় সালাউদ্দিন নামে এক অটোরিকশাচালককে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। আজ শনিবার বিকেল ৩টার দিকে সাতক্ষীরা সদরের কাশেমপুর মালিপাড়া থেকে পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে। এ সময় জব্দ করা হয়েছে হতাকাণ্ডে ব্যবহৃত ছুরি।

নিহত সালাউদ্দিন সরদার (১৬) সাতক্ষীরা সদরের কাশেমপুর গ্রামের মালিপাড়ার ভ্যানচালক শাহজাহান ওরফে বাবুর আলী সরদারের ছেলে।

নিহতের পিতা শাহজাহান ওরফে বাবুর আলী সরদার জানান, বাড়িতে কেউ না থাকার সুবাদে শুক্রবার দিবাগত রাতে সালাউদ্দীন ও তার বন্ধু রসুলপুর এলাকার সাগর হোসেন একই কক্ষে ছিল। শনিবার দুপুরের দিকে সাগরের বাবা শহিদুল ইসলাম তাকে তার ছেলে সালাউদ্দীনকে খোঁজ নিতে বলেন। তিনি তখন বাড়িতে যেয়ে তার ছেলের মরদেহ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেন।

নিহতের বোন রীতামনি বলেন, সাগর ও সালাউদ্দিন একসাথে ঘুরত। রাতে সাগর ও সালাউদ্দিন একই ঘরে ছিল। পুলিশ লাশ উদ্ধারের আগে সালাউদ্দিনের ঘরের বাইরে থেকে তালা মারা ছিল। তাই সাগরই খুন করেছে সালাউদ্দিনকে এমন দাবি করেন রীতামনি।

তবে এলাকার অনেকেই নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানিয়েছেন, সাগর ও সালাউদ্দীন মাদক চোরাচালান ও সেবনের সাথে জড়িত। তাদের নেতৃত্বে এলাকায় একটা কিশোর গ্যাং গড়ে উঠেছে। যারা বিভিন্ন সময় অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড করত। মাদক চোরাচালানের ভাগবাটোয়ারাসংক্রান্ত বিরোধে এমন হত্যাকাণ্ড ঘটতে পারে বলে ধারণা এলাকাবাসীর।

সাতক্ষীরা সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শামসুল হক শামস ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের বলেন, শনিবার বিকেলে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের মর্গে ময়নাতদন্ত শেষে সালাউদ্দিনের লাশ তার স্বজনদের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত একটি রক্তমাখা ছুরি উদ্ধার করা হয়েছে। হত্যার কারণ জানার চেষ্টা চলছে। সিটি কলেজ এলাকায় গড়ে ওঠা কিশোর গ্যাং সম্পর্কে খোঁজ নেওয়া হচ্ছে। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত মামলার প্রস্তুতি চলছিল।



সাতদিনের সেরা