kalerkantho

বুধবার । ৮ বৈশাখ ১৪২৮। ২১ এপ্রিল ২০২১। ৮ রমজান ১৪৪২

মামুনুলকাণ্ডে 'পুরুষশুন্য' গ্রাম!

ছাতক (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি   

৯ এপ্রিল, ২০২১ ০৪:৪৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মামুনুলকাণ্ডে 'পুরুষশুন্য' গ্রাম!

রয়্যাল রিসোর্টে নারীসহ হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হক আটকের খবর পেয়ে ছাতক পৌর শহরে তার সমর্থকদের মিছিল থেকে ছাতক থানায় হামলা ভাঙচুর এবং পাচঁ পুলিশ সদস্যকে আহত করার ঘটনায় গ্রেপ্তার আতঙ্কে পুরুষশুন্য রয়েছে উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের গনেশপুর, রহমতপুর, ছড়ারপাড়, বাহাদুরপুর, পৌর শহরের চরেরবন্দসহ কয়েকটি গ্রাম। 

গত রবিবার রাতে হামলার পর ৯৫ জনের নাম উল্লেখ করে মোট ৯০০ জনের বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা করা হয়।

মামলার পর থেকে গ্রামের বাসিন্দারা আতঙ্কে বসতভিটা ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন। গ্রেপ্তারের ভয়ে দিনের বেলায় হাতেগোনা কয়েকজন পুরুষকে দেখা গেলেও রাতে সে সংখ্যা নেমে আসে শূন্যের কোটায়। বর্তমানে গ্রামের বেশিরভাগ বাড়িতে নারী ও শিশুরাই শুধু অবস্থান করছেন। থানা পুলিশের নিয়মিত অভিযানে এলাকাজুড়ে থমথমে পরিবেশ বিরাজ করছে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপারের (ছাতক সার্কেল) নেতৃত্বে প্রায় অর্ধশতাধিক পুলিশ সদস্য ছাতক পৌর শহরসহ গনেশপুর গ্রামে মহড়া দিতে দেখা গেছে। 

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ইন্সপেক্টর (অপারেশন) মিজানুর রহমান জানান, প্রকৃত দোষীদের গ্রেপ্তারের জন্য নিয়মিত অভিযান চালানো হচ্ছে। অভিযান অব্যাহত থাকবে কোনো অপরাধি ছাড় পাবে না। পুলিশ এব্যাপারে জিরো টলারেন্সে রয়েছে। 

ছাতক থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ নাজিম উদ্দিন জানান, এলাকার পরিস্থিতি এখন শান্ত আছে। যারা দোষী নয় তারা গ্রামে আসতে বাঁধা নেই। এ ছাড়া কেউ যেন এসে গ্রামে অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটাতে না পারে সে জন্যে পুলিশ তৎপর রয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা