kalerkantho

বুধবার । ২৮ বৈশাখ ১৪২৮। ১১ মে ২০২১। ২৮ রমজান ১৪৪২

দুই মাটি ব্যবসায়ীকে দেড় লাখ টাকা জরিমানা

মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি    

৪ এপ্রিল, ২০২১ ১০:৩৪ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



দুই মাটি ব্যবসায়ীকে দেড় লাখ টাকা জরিমানা

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে অবৈধভাবে আবাদি জমি ও নদীর পাড় কেটে মাটি বিক্রির দায়ে দুই মাটি ব্যবসায়ীকে এক লাখ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। হাসান মল্লিক নামের এক ব্যবসাীকে এক লাখ টাকা ও মো. শওকত খান নামের এক যুবলীগ নেতাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা  করা হয়।

এছাড়া মাস্ক ব্যবহার না করার অপরাধে চার পথচারীকে ৫ হাজার ৬০০ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

মির্জাপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. জোবায়ের হোসেনের নেতৃত্বে উপজেলার বহুরিয়া ও হাঁটুভাঙ্গা বাজার এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান চালিয়ে এই জরিমানা আদায় করা হয়।

মাটি ব্যবসায়ী হাসান মল্লিক উপজেলার গোড়াই ইউনিয়নের মীর দেওহাটা গ্রামের জংশের আলী মল্লিকের ছেলে ও শওকত খান বহুরিয়া গ্রামের হেলাল উদ্দিন খানের ছেলে এবং বহুরিয়া ইউনিয়ন যুবলীগের আহ্বায়ক।

জানা গেছে, মীর দেওহাটা গ্রামের জংশের আলী মল্লিকের ছেলে হাসা মল্লিক দীর্ঘদিন ধরে উপজেলার বহুরিয়া এলাকায় আবাদি জমি ধ্বংস করে ভেকু মেশিন দিয়ে মাটি কেটে বিক্রি করে আসছিলেন। মাটিভর্তি ভারী ড্রাম ট্রাকে নিয়ে চলাচলের কারণে ওই এলাকার আবাদি জমি ও দেওহাটা-গেড়ামাড়া সড়কের ব্যাপক ক্ষতি হচ্ছিল। এছাড়া আশপাশের বাড়িঘরে ধুলায় ঢেকে যায়- এমন খবর পেয়ে গত শুক্রবার ও গতকাল শনিবার গভীর রাতে মির্জাপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. জোবায়ের হোসেনের নেতৃত্বে বহুরিয়া এলাকায় অভিযান  চালানো হয়।

অভিযানের বিষয়টি টের পেয়ে ভেকু ও ড্রাম ট্রাকের চালকরা পালিয়ে গেলেও ড্রাম ট্রাক আটক করে ভ্রাম্যমাণ  আদালত। পরে অবৈধভাবে মাটি কাটার অপরাধে হাসান  মল্লিককে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। পরে জরিমানার টাকা পরিশোধ করে ড্রাম  ট্রাক ছাড়িয়ে নেন।

এছাড়া বহুরিয়া ইউনিয়নের দেওহাটা-গেড়ামাড়া সড়কের চান্দুলিয়া এলাকার শিল্পপতি নুরুল ইসলাম সেতুর কাছ থেকে নদীর পার কেটে মাটি কাটার অপরাধে যুবলীগ নেতা মো. শওকত খানকে ৫০ হাজার টাক জরিমানা করেন। তিনি বহুরিয়া গ্রামের হেলাল উদ্দিন খানের ছেলে।

মো. জোবায়ের হোসেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) হিসেবে গত বছর মার্চ মাসে মির্জাপুরে যোগদান করেন। তিনি গত এক বছরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান চালিয়ে দেড় শতাধিক কয়লা তৈরির চুল্লি ধ্বংস, অবৈধভাবে মাটি কাটার অপরাধে ব্যবসায়ীদের জরিমানা, ফিটনেস বিহীন যানবাহন, অবৈধ স'মিল, নদীতে ড্রেজার ধ্বংস, ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে অভিযান চালিয়ে প্রায় ৫০ লাখ টাকা জরিমানা আদায় করেছেন।

ইএছাড়া মির্জাপুরে বিভিন্ন স্পটে অভিযান  চালিয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেন ঘরের বাইরে আসার  প্রচারণা অব্যাহত রাখেন। মাস্ক না পড়ার কারণে বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষকেও ভ্রাম্যমাণ  আদালতের মাধ্যমে জরিমানা করেন। মির্জাপুর উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) মো. জোবায়ের হোসেন বলেন, জনস্বার্থে এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে। 



সাতদিনের সেরা