kalerkantho

শুক্রবার । ১১ আষাঢ় ১৪২৮। ২৫ জুন ২০২১। ১৩ জিলকদ ১৪৪২

বাবার পরে সড়কে প্রাণ গেল ছেলের, ব্যবধান ১৫ দিন

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি   

৩ এপ্রিল, ২০২১ ১৭:৫৫ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



বাবার পরে সড়কে প্রাণ গেল ছেলের, ব্যবধান ১৫ দিন

মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগরে রোলারচাপায় মাথা বিচ্ছিন্ন হয়ে জুলহাস নামে এক অটোরিকশাচালকের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। জুলহাস উপজেলার পাটাভোগ ইউনিয়নের নারী সদস্য রোকেয়া বেগমের ভাই। আজ শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ঢাকা মাওয়া এক্সপ্রেসওয়ের পশ্চিম পাশের সার্ভিস লেনের বেজগাঁও এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

শ্রীনগর ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার দেওয়ান আজাদ হোসেন ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ঢাকা মাওয়া এক্সপ্রেসওয়ের পশ্চিম পাশের সার্ভিস লেনের বেজগাঁও এলাকায় অটোরিকশা চালক জুলহাসের অটোরিকশাটি নষ্ট হয়ে যায়। তিনি সার্ভিস লেনে দাঁড়িয়ে তার অটোরিকশাটি মেরামত করছিলেন। এমন সময় পদ্মাসেতুর সংযোগ রেল পথের কাজে নিয়োজিত একটি রোলার উল্টোপথে যাওয়ার সময় তাকে চাপা দেয়। এতে জুলহাসেরমাথা বিচ্ছিন্ন হয়ে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

হাসাড়া হাইওয়ে থানার ওসি আফাজাস হোসেন জানান, পরিবারের পক্ষ থেকে লাশ ময়নাতদন্ত ছাড়া দাফনের জন্য জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে আবাদেন করা হয়েছে। আবেদন মঞ্জুর হলে পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হবে।

উল্লেখ্য, ১৫ দিন আগে জুলহাসের বাবা মো. তাইজুদ্দিন দেওয়ানও সড়ক দুর্ঘটনায় মারা যান।



সাতদিনের সেরা