kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১০ আষাঢ় ১৪২৮। ২৪ জুন ২০২১। ১২ জিলকদ ১৪৪২

ওড়ার অপেক্ষায় ১৬টি শকুন

দিনাজপুর প্রতিনিধি   

২৯ মার্চ, ২০২১ ০৩:১৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ওড়ার অপেক্ষায় ১৬টি শকুন

দিনাজপুরের বীরগঞ্জে সিংড়া জাতীয় উদ্যানের শকুন উদ্ধার ও পরিচর্যাকেন্দ্রে সুস্থ হয়ে ওঠা ১৬টি শকুন আবারও খোলা আকাশে উড়ে বেড়ানোর অপেক্ষায় রয়েছে। আগামী মাসের যেকোনো দিন শকুনগুলো উন্মুক্ত করা হবে।

বিলুপ্ত ও বিপন্নপ্রায় শকুন রক্ষা, বংশবৃদ্ধি এবং প্রকৃতির ভারসাম্য রক্ষায় এই শকুন উদ্ধার ও পরিচর্যাকেন্দ্রটি স্থাপন করা হয়েছে। এটি বাংলাদেশে একমাত্র শকুন উদ্ধার ও পরিচর্যাকেন্দ্র।

দিনাজপুর, ঠাকুরগাঁও, পঞ্চগড়, রাজশাহী, কুড়িগ্রাম, টাঙ্গাইল, গাইবান্ধা, রংপুর, নীলফামারীসহ আশপাশের বিভিন্ন জেলা থেকে শকুন সংগ্রহ করে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে রেখে চিকিৎসাসহ পরিচর্যা করা হয়। পরে অসুস্থ ও দুর্বল শকুনগুলোকে চিকিৎসার মাধ্যমে সুস্থ করার পর আবার প্রকৃতিতে ছেড়ে দেওয়া হয়।

সিংড়া জাতীয় উদ্যানের শকুন পরিচর্যার দায়িত্বে থাকা হাবিবুর রহমান জানান, উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে মোবাইল ফোনে সংবাদ পেয়ে অসুস্থ অবস্থায় ১৬টি শকুন উদ্ধার করা হয়। শকুনগুলোকে পরিচর্যা শেষে সুস্থ করে আবার প্রকৃতিতে ছেড়ে দেওয়া হবে। বর্তমানে ১৬টি শকুনকে এক দিন পর পর আট থেকে ৯ কেজি ব্রয়লার মুরগির মাংস খেতে দেওয়া হয়। এ ছাড়া পানি, খাবার স্যালাইন, ভিটামিন ও ওষুধ দেওয়া হয়।

সিংড়া জাতীয় উদ্যানের বিট কর্মকর্তা হরিপদ দেবনাথ বলেন, ‘হিমালয়ের পাদদেশে দিনাজপুর, ঠাকুরগাঁও ও পঞ্চগড় জেলা অবস্থিত। এ কারণে এই এলাকায় এখনো কিছু শকুন দেখা যায়। অনেক সময় এগুলো অতিথি হয়ে আসে। এই শকুনগুলো অনেক দূর থেকে আমাদের দেশে আসায় ক্লান্ত হয়ে পড়ে। পাশাপাশি খাদ্যের অভাবে অসুস্থ হয়ে মাটিতে পড়ে যায়।’



সাতদিনের সেরা