kalerkantho

রবিবার। ২৮ চৈত্র ১৪২৭। ১১ এপ্রিল ২০২১। ২৭ শাবান ১৪৪২

জমকালো আয়োজনে বিজিবি-বিএসএফ রিট্রিট সিরিমনি

ওমর ফারুক বেনাপোল থেকে   

২৭ মার্চ, ২০২১ ০০:৪৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জমকালো আয়োজনে বিজিবি-বিএসএফ রিট্রিট সিরিমনি

জমকালো আয়োজনে বেনাপোল স্থলবন্দরে অনুষ্ঠিত হলো বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ও বর্ডার সিকিউরিটি ফোর্সের (বিএসএফ) রিট্রিট সিরিমনি। বাংলাদেশ ও ভারতের সীমান্তরক্ষীরা প্যারেডের মাধ্যমে উভয় দেশের পতাকা নামান। যৌথ প্যারেড ছিল আকর্ষণীয়। প্যারেড দেখতে দুই দেশের সাধারণ মানুষও উপস্থিত ছিল। প্যারেডের সময় তাদের করতালিতে আনন্দমুখর পরিবেশের সৃষ্টি হয়। 

বিজিবি ও বিএসএফ সাধারণ মানুষের মাঝে মিষ্টি বিতরণ করে। গতকাল শুক্রবার বিকেল সোয়া ৫টায় এ সিরিমনি অনুষ্ঠিত হয়। 

মহান স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে বিজিবি-বিএসএফ যৌথ ‘রিট্রিট সিরিমনি’র আয়োজন করা হয়। বেনাপোল পেট্রাপোল ছাড়াও আগরতলা ও বাংলাবান্ধা-ফুলবাড়ী আইসিপিগুলোতে উভয় দেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিবি-বিএসএফের যৌথ ‘রিট্রিট সিরিমনি’ প্যারেড অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বেনাপোলে অনুষ্ঠিত রিট্রিট সিরিমনি অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সংসদ সদস্য শেখ আফিল উদ্দিন, বিজিবির যশোর রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ সোহরাব হোসেন ভুইয়া, বিএসএফের ১৫৮ ব্যাটালিয়নের কমান্ড্যান্ট অরুণ কুমার, ১৭৯ ব্যাটালিয়নের কমান্ড্যান্ট সুনীল কুমারসহ বিজিবি ও বিএসএফের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

অনুষ্ঠানে ভারতের অর্ধশতাধিক নাগরিক উপস্থিত ছিলেন। তাঁদের একজন পিয়ালী সরকার কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবসে এখানে এসে খুব ভালো লাগছে। বাংলাদেশ খুব সুন্দর দেশ। আজকের দিনে বাংলাদেশের সমৃদ্ধি কামনা করছি।’

করোনার কারণে রিট্রিট সিরিমনি বন্ধ ছিল জানিয়ে যশোর রিজিয়ন কমান্ডার বলেন, স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে গতকাল শুক্রবার এ সিরিমনি অনুষ্ঠিত হলো।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা