kalerkantho

রবিবার । ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮। ১৩ জুন ২০২১। ১ জিলকদ ১৪৪২

পুলিশের ইয়াবা ব্যবসা! ক্লোজড ৩ সদস্য

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি   

২৫ মার্চ, ২০২১ ২০:৫৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পুলিশের ইয়াবা ব্যবসা! ক্লোজড ৩ সদস্য

পুলিশ সদস্য আতিক হোসেন

ইয়াবা ব্যবসায় সম্পৃক্ত থাকার অভিযোগে লক্ষ্মীপুরের রায়পুর থানার এএসআই মনিরুজ্জামানসহ তিন পুলিশকে ক্লোজড করা হয়। তাদেরকে জেলা পুলিশ লাইনসে পাঠানো হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ক্লোজড করার বিষয়টি রায়পুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল জলিল নিশ্চিত করেছেন। 

তিনি বলেন, ফেসবুকে একটি ভিডিওতে পুলিশ সদস্যরা ইয়াবা বাণিজ্যের সঙ্গে জড়িত থাকার প্রচার হচ্ছে বলে শুনেছি। ভিডিওটি আমরা সংগ্রহ করে খতিয়ে দেখব।

থানা সূত্র জানায়, সম্প্রতি ইয়াবা ব্যবসায় সম্পৃক্ততা থাকার অভিযোগ উঠেছে রায়পুর থানার এএসআই মনিরুজ্জামান, পুলিশ সদস্য আতিক হোসেন ও মো. মোখলেছের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে গতকাল বুধবার তাদেরকে ক্লোজড করা হয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, কয়েকমাস ধরে পুলিশ কনস্টেবল আতিকসহ থানার কয়েকজন ইয়াবা ব্যবসার সঙ্গে সম্পৃক্ত। তারা থানার সামনে সিএনজি চালিত অটোরিকশার লাইনম্যান শাকিল ও কয়েকজন সোর্সকে দিয়ে ইয়াবা সরবরাহ করে আসছিলেন। এক ভিডিওতে শাকিল বলছেন, পুলিশ আতিকের দেওয়া ইয়াবা সরবরাহ করতে গিয়ে তিনি ডিবির এসআই নুরুল ইসলামের হাতে ধরা পড়েছেন। জামিনে বের হওয়ার পর আতিক তাকে নেশা করা ও ইয়াবা পাচার করতে বাধ্য করেন। শাকিলের ওই ভিডিওগুলো ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে।

এ ব্যাপারে এএসআই মনিরুজ্জামান জানান, তিনি জেলা পুলিশ লাইন্সে রয়েছেন। কি কারণে তাকে ক্লোজড করা হয়েছে তা নিশ্চিতভাবে বলা হয়নি। তবে আতিক ও মোখলেছ মাদকের সঙ্গে সম্পৃক্ত বলে তিনি শুনেছেন।



সাতদিনের সেরা