kalerkantho

মঙ্গলবার । ৭ বৈশাখ ১৪২৮। ২০ এপ্রিল ২০২১। ৭ রমজান ১৪৪২

মুখোশধারীরা এসে মারধর করে চলে গেল, এলাকায় আতঙ্ক

কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি   

১৯ মার্চ, ২০২১ ১৩:৩৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মুখোশধারীরা এসে মারধর করে চলে গেল, এলাকায় আতঙ্ক

আহত সেচ প্রকল্পের শ্রমিক অনাদি মন্ডল

কেশবপুরের বিল খুকশিয়ায় বৃহস্পতিবার রাতে মুখোশধারীরা সেচ প্রকল্পের শ্রমিক অনাদি মন্ডলকে (৪০) পিটিয়ে আহত করে। খবর পেয়ে এলাকাবাসী তাকে উদ্ধার করে রাতেই কেশবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। তিনি উপজেলার ডহুরি গ্রামের মৃত গুরুপদ মন্ডলের ছেলে। এ ঘটনার পর থেকে এলাকাবাসীর ভেতর আতঙ্ক বিরাজ করছে।

এলাকার একাধিক ব্যক্তি জানান, দীর্ঘদিন ধরে বিল খুকশিয়ার ভেতর দিয়ে দুষ্কৃতিকারীরা চলাচল করে থাকে। সম্প্রতি এলাকার কৃষকদের ধান চাষের জন্য বিল খুকশিয়ার ৮ ব্যান্ড স্লুইচ গেটের পাশে সেচ প্রকল্প শুরু হয়। ওই প্রকল্প শুরু হলে দুষ্কৃতিকারীদের চলাচলে অসুবিধা হচ্ছে। 

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন অনাদি মন্ডল বলেন, রাত সাড়ে ৯টার দিকে ৫-৬ জন মুখবাঁধা ব্যক্তি তাকে ডহুরি বিলের টোং ঘর থেকে বের করে গলা টিপে ধরে বুকে আঘাত করে মারাত্মকভাবে আহত অবস্থায় ফেলে রেখে যায়। অনাদি মন্ডল বিল খুকশিয়ায় সেচ প্রকল্পের শ্রমিক হিসেবে দিন ও রাতে কাজ করেন। কেন বা কারা তাকে মারপিট করেছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, তার সঙ্গে কারও কোনো শত্রুতা নেই। যারা মারপিট করেছে তাদেরকে তিনি চিনতে পারেননি। মারপিট করে মুখোশধারীরা বিলের মধ্য দিয়ে চলে যায়। 

এ ব্যাপারে সেচ প্রকল্পের যুগ্ম আহ্বায়ক সুফলাকাটি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুস সামাদ বলেন, মুখোশপরা ব্যক্তিরা শ্রমিক অনাদি মন্ডলকে মারপিট করার পর থেকে এলাকাবাসীর ভেতর আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। বিল খুকশিয়ার ভেতর দিয়ে দীর্ঘদিন দুষ্কৃতিকারীরা চলাচল করে। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা