kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১০ আষাঢ় ১৪২৮। ২৪ জুন ২০২১। ১২ জিলকদ ১৪৪২

মায়ের ঝুলন্ত লাশের পাশে কাঁদছিল শিশুটি

রায়পুরা (নরসিংদী) প্রতিনিধি   

১৮ মার্চ, ২০২১ ১৮:৫৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মায়ের ঝুলন্ত লাশের পাশে কাঁদছিল শিশুটি

নরসিংদীর রায়পুরা পৌর এলাকার শ্রীরামপুরে সাবিকুন্নাহার (২০) নামে এক গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার রাত সাড়ে ১১টায় ওই গৃহবধূর ভাসুরের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

রায়পুরা থানার এসআই আব্দুল জব্বার জানান, খবর পেয়ে সকালে গিয়ে লাশের সুরতহাল শেষে ময়নাতদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠাই। তদন্ত রিপোর্ট হাতে আসার পর মৃত্যুর কারণ জানা যাবে।

পারিবারিক সূত্র জানায়, চার বছর আগে পারিবারিকভাবে রায়পুরা পৌর এলাকার তাত্তাকান্দার সাদেক মিয়ার মেয়ের সঙ্গে শ্রীনগর ইউনিয়নের পলাশতলী এলাকার সৌদি আরব প্রবাসী সালাউদ্দিনের বিয়ে হয়। এই দম্পতির একটি কন্যাসন্তার আছে। গত পরশু ওই গৃহবধূ তার ভাসুরের বাড়ি রায়পুরা পৌর এলাকার শ্রীরামপুরে বেড়াতে আসেন। বুধবার রাতে খাবার শেষে কন্যাকে নিয়ে ঘরের একটি কক্ষে ঘুমিয়ে পড়েন। রাত সাড়ে ১১টায় হঠাৎ শিশুটির কান্নার শব্দ শুনতে পান পাশের রুমে থাকা স্বজনরা। পরে দরজায় কড়া নেড়েও সাবিকুন্নারের শব্দ পাওয়া যায়নি। এগিকে শিশুটির কান্না কিছুতেই থামছিল না। এরপর বাড়ির অন্য সদস্যরা জানালার ফাঁক দিয়ে দেখতে পান ফ্যানের সঙ্গে ঝুলছে সাবিকুন্নাহার। পরে জানালার গ্রিল কেটে শিশুটিকে বের করে আনা হয়। খবর পেয়ে সকালে পুলিশ গিয়ে গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে।

নিহত সাবিকুন্নাহারের মা হাসিনা বেগমের ধারণা ফোনে প্রবাসী স্বামীর সঙ্গে কোনো বিষয় নিয়ে কথাকাটাকাটির জেরেই মেয়ে সাবিকুন্নাহার আত্মহত্যা করে থাকতে পারে।



সাতদিনের সেরা