kalerkantho

রবিবার। ৫ বৈশাখ ১৪২৮। ১৮ এপ্রিল ২০২১। ৫ রমজান ১৪৪২

স্বামীর সাথে ঝগড়া করে শুয়ে পড়লেন ট্রেনের সামনে, যেতে হলো মর্গে

জামালপুর প্রতিনিধি   

১৭ মার্চ, ২০২১ ১৭:২৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



স্বামীর সাথে ঝগড়া করে শুয়ে পড়লেন ট্রেনের সামনে, যেতে হলো মর্গে

স্বামীর সাথে ঝগড়া করে পাঁচ সন্তানের মা হাসি বেগম (৩৫) বাড়ি থেকে চলে গিয়ে রেললাইনের ওপর শুয়ে ছিলেন। চলন্ত ট্রেনে কাটাপড়ে দেহ হলো ছিন্নভিন্ন। মরদেহ মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ। আজ বুধবার দুপুরে জামালপুর-দেওয়ানগঞ্জ রুটের জামালপুর কোর্ট স্টেশন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত ওই নারী জামালপুর পৌরসভার পাথালিয়া গজপাড়া গ্রামের সিএনজিচালক মো. ওমর উদ্দিনের স্ত্রী।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, আজ বুধবার দুপুর সোয়া ১২টার দিকে জামালপুর-দেওয়ানগঞ্জ রুটের জামালপুর কোর্ট স্টেশনের কাছে রেলনাইনের পাশে খেজুর গাছের নিজে অজ্ঞাতপরিচয়ের এক নারী বেশ কিছুক্ষণ বসে ছিলেন। এ সময় জামালপুর স্টেশন থেকে ছেড়ে যাওয়া দেওয়ানগঞ্জগামী আন্তনগর তিস্তা এক্সপ্রেস ট্রেন আসছে দেখে ওই নারীকে রেললাইনের ওপর শুয়ে পড়তে দেখা যায়। এতে চলন্ত ট্রেনের নিচে কাটা পড়ে তার দেহ ছিন্নভিন্ন হয়ে যায়। এই মর্মান্তিক মৃত্যুর ঘটনা জানাজানি হলে শহরের পাথালিয়া গজপাড়া থেকে তার স্বজনরা ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই নারীকে শনাক্ত করেন। খবর পেয়ে জামালপুর রেলওয়ে থানার পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ওই নারীর মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায়।

নিহতের প্রতিবেশীরা জানান, হাসি বেগম বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে তার স্বামীর সাথে ঝড়গার একপর্যায়ে রাগ করে বাড়ি থেকে চলে গিয়েছিলেন। স্ত্রীর মৃত্যুর কথা শুনে তার স্বামী সিএনজিচালক ওমর উদ্দিন বাড়ি ছেড়ে পালিয়েছেন।

জামালপুর রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোল্লা মোহাম্মদ খবির আহমেদ কালের কণ্ঠকে বলেন, ওই নারী পারিবারিক কলহের জের ধরে হয়তো আত্মহত্যা করেছেন। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ময়মনাতদন্তের জন্য ওই নারীর মরদেহ জামালপুর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে রেলওয়ে থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করা হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা