kalerkantho

বুধবার । ১ বৈশাখ ১৪২৮। ১৪ এপ্রিল ২০২১। ১ রমজান ১৪৪২

আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে স্বেচ্ছাসেবক লীগের মারামারি

আহত ৩

নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুড়া   

১০ মার্চ, ২০২১ ১৮:৩৪ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে স্বেচ্ছাসেবক লীগের মারামারি

দলীয় কোন্দলের জের ধরে বগুড়ায় আওয়ামী লীগের জেলা কার্যালয়ে শহর স্বেচ্ছাসেবক লীগের উত্তর ও দক্ষিণের নেতাকর্মীদের মধ্যে মারপিট  হয় এবং ব্যানার ছিঁড়ে ফেলা হয়। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন তিনজন। আজ বুধবার দুপুর ১টার দিকে শহরের টেম্পল সড়কে অবস্থিত দলীয় কার্যালয়ে এই ঘটনা ঘটে।

দলীয় সূত্রে জানা যায়, শস্যচিত্রে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি নিয়ে শহর স্বেচ্ছাসেবক লীগ উত্তরের সভাপতি মশিউর রহমান মন্টি ও সাধারণ সম্পাদক লিটন শেখ তাদের সংগঠনের কর্মীদের নিয়ে জেলা আওয়ামী লীগ কার্যলয়ের ভেতরে ব্যানার টানিয়ে সভা করছিলেন। বেলা ১২টায় সভাটি শুরু হয়। সভায় জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ভিপি সাজেদুর রহমান শাহীন উপস্থিত ছিলেন। এক ঘণ্টা সভা চলার পর শহর স্বেচ্ছাসেবক লীগ দক্ষিণের সভাপতি নাসিমুল বারী নাসিম ও তার নেতাকর্মীরা দলীয় কার্যালয়ে উপস্থিত হয়। এ সময় নাসিম দাবি করেন- পূর্ব কোনো কর্মসূচি ছাড়া সভা করা হচ্ছে। সভার তথ্য তাদেররকে জানানো হয়নি। এনিয়ে প্রথমে দুইপক্ষর মধ্যে বাগবিতণ্ডা শুরু হয়। পরে উভয় পক্ষের নেতাকর্মীদের মাঝে মারপিটের ঘটনা ঘটে।

ঘটনায় শহর স্বেচ্ছাসেবক লীগ উত্তরের তিন জন আহত হয়েছেন। আহতরা হলেন- শহর স্বেচ্ছাসেবক লীগ (উত্তর) যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবু বক্কর সোহান, অর্থ বিষয়ক সম্পাদক এনামুল ও ৬নম্বর ওয়ার্ড শাখার সাধারণ সম্পাদক সোহেল।

বগুড়া শহর স্বেচ্ছাসেবক লীগ (উত্তর) সভাপতি মশিউর রহমান মন্টি ও সাধারণ সম্পাদক লিটন শেখ জানান, পূর্বনির্ধারিত কর্মসূচি অনুযায়ী বেলা ১২টায় দলীয় কার্যালয়ে সভা চলছিলো। এই সভায় সংগঠনের জেলা সভাপতি উপস্থিত ছিলেন। এ সময় দক্ষিণের সভাপতি নাসিমের নেতৃত্বে একটি দল অতর্কিত ভাবে আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে প্রবেশ করে এবং দলীয় ব্যানার ছিঁড়ে ফেলে দিয়ে নেতাকর্মীর ওপর হামলা চালায়।

শহর স্বেচ্ছাসেবক লীগ (দক্ষিণ) সভাপতি নাসিমুল বারী নাসিম জানান, বুধবার দুপুরে দলীয় কার্যালয়ে শহর শাখার পূর্বনির্ধারিত বর্ধিত সভার আয়োজন করা হয়। কিন্তু কোন কিছু না জানিয়ে সংগঠনের জেলা সভাপতি সাজেদুর রহমান শাহীন উত্তরের নেতাকর্মীদেও নিয়ে নির্ধারিত সময়ের আগেই সভা শুরু করেন। তিনি দাবি করেন- শহর স্বেচ্ছাসেবক লীগের  উত্তর ও দক্ষিণ করে দুটি কমিটি করা হয়েছে যা সংগঠনের নিয়ম বহির্ভূত।

জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ভিপি সাজেদুর রহমান শাহীন বলেন, বগুড়া শহর অনেক বড়। শহর স্বেচ্ছাসেবক লীগের দুটি কমিটি করা হয়েছে। এটি কেন্দ্রীয় কমিটিকে জানিয়ে ও নির্দেশ মোতাবেক করা হয়েছে। কমিটি গঠন নিময় বহির্ভূত ভাবে নয় বরং সংগঠন মেনে করা হয়েছে।

সভায় মারপিটের বিষয়ে তিনি জানান, শহর স্বেচ্ছাসেবক লীগ উত্তরের সভা চলছিল। এ সময় শহর স্বেচ্ছাসেবক লীগ দক্ষিণের সভাপতি নাসিমুল বারী নাসিম তার লোকজন নিয়ে সভায় প্রবেশ করে হট্টগোল সৃষ্টি করে। এক পর্যায়ে মারপিটে শহর স্বেচ্ছাসেবক লীগ উত্তরের তিন জন আহত হন। এ ঘটনার সাথে জড়িতদের সকলকে বহিষ্কারের জন্য কেন্দ্রীয় কমিটির কাছে সুপারিশ পাঠানো হবে বলেও জানান তিনি।

বগুড়া সদর ফাঁড়ির উপপরিদর্শক (এসআই) খোরশেদ আলম রবি জানান, আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে শহর স্বেচ্ছাসেবক লীগের উত্তর ও দক্ষিণের নেতাকর্মীদের মাঝে সংঘর্ষের খবর পেয়ে সেখানে পুলিশ যায়। এ ব্যাপারে লিখিত অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা