kalerkantho

বুধবার । ৮ বৈশাখ ১৪২৮। ২১ এপ্রিল ২০২১। ৮ রমজান ১৪৪২

তরুণদের ঢিলে আহত সেই ময়ূরটিকে বাঁচানো গেল না

দিনাজপুর প্রতিনিধি   

১০ মার্চ, ২০২১ ১৫:১৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



তরুণদের ঢিলে আহত সেই ময়ূরটিকে বাঁচানো গেল না

পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলা থেকে আহত অবস্থায় উদ্ধার হওয়া ময়ূরটিকে বাঁচানো গেল না। গতকাল মঙ্গলবার সকালে ময়ূরটি রামসাগর জাতীয় উদ্যানের মিনি চিড়িয়াখানায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়। পঞ্চগড় জেলার বোদা উপজেলার চন্দনবাড়ী ইউনিয়নের বারঘরিয়া এলাকা থেকে গত শুক্রবার (৫ মার্চ) সন্ধ্যায় আহত অবস্থায় ময়ূরটি উদ্ধার করা হয়।

স্থানীয়রা জানায়, গত শুক্রবার বিকেলে বারঘরিয়া এলাকার একটি গাছে ময়ূরটি দেখতে পেয়ে স্থানীয় কয়েক তরুণ ঢিল ছুড়লে আহত হয়ে সেটি মাটিতে পড়ে যায়। পরে ময়ূরটিকে ধরে তারা মিজানুর রহমান নামের এক তরুণের বাড়িতে বেঁধে রাখে। বিষয়টি পুলিশ ও বন বিভাগের কর্মীদের জানায় স্থানীয়রা। তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে আহত ময়ূরটিকে উদ্ধার করে নিয়ে যায়। আহত হওয়ায় ময়ূরটিকে প্রথমে বোদা উপজেলা প্রাণিসম্পদ কার্যালয়ের প্রাণী চিকিৎসক ডা. আব্দুস সোবহানের কাছে নিয়ে গেলে তিনি প্রাথমিক চিকিৎসা দেন। পরদিন শনিবার ময়ূরটিকে দিনাজপুর রামসাগর জাতীয় উদ্যানে রাখার জন্য পাঠানো হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল মঙ্গলবার সকালে ময়ূরটি মারা যায়।

দিনাজপুর বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মো. সাদেকুর রহমান ময়ূরটি মারা যাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, অনেক চেষ্টা করেও আহত ময়ূরটিকে বাঁচানো সম্ভব হয়নি। 

তিনি বলেন, এটি ‘ইন্ডিয়ান পিকক’ গোত্রের ময়ূর ছিল। স্থানীয় জনগন আঘাত করায় ময়ূরটি আহত হয়েছিল। পিঠের পালকগুলো উঠে গিয়েছিল। দিনাজপুর জেলা ও উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তারা চিকিৎসা দিয়েও বাঁচাতে পারেননি। প্রাপ্তবয়স্ক ময়ূরটির ওজন ছিল প্রায় পাঁচ কেজি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা