kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৯ বৈশাখ ১৪২৮। ২২ এপ্রিল ২০২১। ৯ রমজান ১৪৪২

আগুনে দগ্ধ হয়ে প্রসূতি নারীর মৃত্যু

বোয়ালমারী-আলফাডাঙ্গা (ফরিদপুর) প্রতিনিধি   

৯ মার্চ, ২০২১ ০৪:২৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আগুনে দগ্ধ হয়ে প্রসূতি নারীর মৃত্যু

প্রতীকী ছবি

ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা উপজেলায় আগুনের তাপ নিতে গিয়ে দগ্ধ হয়ে কেয়া খানম (২২) নামে এক প্রসূতি নারীর মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, এক বছর আগে আলফাডাঙ্গা উপজেলার টগরবন্দ ইউনিয়নের তিতুরকান্দি গ্রামের জামাল শেখের মেয়ে কেয়া খানমের গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলার খায়েরহাট গ্রামের কামাল শিকদারের সঙ্গে বিয়ে হয়। চলতি বছরের ২ মার্চ কেয়া খানম তার বাবার বাড়িতে প্রথম পুত্রসন্তান প্রসব করেন। 

গত ৪ মার্চ রাত ৮টার দিকে শরীরে ব্যথা-বেদনার কারণে সন্তানকে বিছানায় রেখে ওই ঘরে বসে মাটির চুলাতে আগুন দিয়ে তাপ নিচ্ছিলেন কেয়া। কিন্তু কখন যে গায়ের কাপড়ে আগুন লেগে যায়; প্রথমে বুঝতে পারেননি। পরে বাড়ির লোকজন আগুন নিয়ন্ত্রণে আনলেও ততক্ষণে কেয়ার শরীরের ৮৭ শতাংশ দগ্ধ হয়ে যায়।

ঘটনার পরপরই স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে কাশিয়ানী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখান থেকে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করেন। সেখানে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা