kalerkantho

শুক্রবার । ৩ বৈশাখ ১৪২৮। ১৬ এপ্রিল ২০২১। ৩ রমজান ১৪৪২

মুক্তিযোদ্ধা বাবার সম্মানীর টাকা না দেওয়ায় মাকে বাড়িছাড়া করল সন্তান!

উলিপুর (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি   

৫ মার্চ, ২০২১ ১৬:৩৪ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



মুক্তিযোদ্ধা বাবার সম্মানীর টাকা না দেওয়ায় মাকে বাড়িছাড়া করল সন্তান!

কুড়িগ্রামের উলিপুরে মুক্তিযোদ্ধা বাবার সম্মানী ভাতার টাকা না দেওয়ায় বৃদ্ধা মাকে বাড়ি থেকে বের করে দিয়েছেন এক সন্তান। নিরুপায় হয়ে অসহায় ওই বৃদ্ধা একমাস ধরে নিজ ভিটে-মাটি ছেড়ে মেয়ের বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছেন। এ ঘটনার প্রতিকার চেয়ে মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার হাতিয়া ইউনিয়নে হাতিয়া ভবেশ ঘোলদারপাড় গ্রামে।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, গত দুই বছর পূর্বে উপজেলার হাতিয়া ইউনিয়নের ঘোলদারপাড় গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা গোলজার হোসেন মৃত্যুবরণ করেন। এরপর থেকে মুক্তিযোদ্ধার সম্মানী ভাতার টাকা দিয়ে সংসার চালিয়ে আসছেন তার স্ত্রী রাবেয়া বেওয়া (৫৬)। বেশ কয়েক মাস ধরে তার পুত্র আতাউর রহমান মুক্তিযোদ্ধা বাবার সম্মানী ভাতার সমুদয় টাকা দিতে মাকে চাপ দিতে থাকেন। কিন্তু রাবেয়া বেওয়া টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করেন। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে আতাউর রহমান ও তার স্ত্রী লিপি বেগম তাকে প্রায় সময় মানসিকভাবে নির্যাতন করে আসতেন। এ ঘটনার জের ধরে গত ৩০ জানুয়ারি তারা রাবেয়া বেওয়াকে বসত ঘর থেকে টেনে বের করে ঘরের দরজায় তালা ঝুলিয়ে দেন। এরপর থেকে তিনি বিভিন্ন আত্মীয়ের বাড়িতে থেকে বর্তমানে মেয়ে গোলাপী বেগমের বাড়ি গুনাইগাছ ইউনিয়নের কৃষ্ণমোহনে আশ্রয় নিয়েছেন।

রাবেয়া বেওয়া বলেন, ছেলে আতাউর রহমানকে সম্মানী ভাতার টাকা না দেওয়ায় আমাকে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দিয়েছে। আমি বাড়িতে ফিরে গেলে আমাকে মেরে ফেলবে বলে হুমকি দিয়েছে। এক মাস অপেক্ষা করার পরেও এ ব্যাপারে কোথাও প্রতিকার না পেয়ে প্রশাসনের কাছে অভিযোগ করেছি। তিনি আরো বলেন, আমার স্বামীর ভিটায় জীবনের শেষ দিনগুলো পাড় করতে চাই। 

আতাউর রহমানের বলেন, আমাকে বঞ্চিত করে জমি জমা টাকা পয়সা অন্য তিন সন্তানকে দেন। আমি এর প্রতিবাদ করায় তিনি বাড়ি থেকে চলে গেছেন। মায়ের ঘরে তালা ঝুলানো প্রসঙ্গে তিনি বলেন, তিনি বাড়িতে নেই, ঘরে জিনিসপত্র রয়েছে, তাই তালা লাগিয়ে দিয়েছি।

হাতিয়া ইউপি চেয়ারম্যান বিএম আবুল হোসেন বলেন, যেহেতু পারিবারিক বিষয়, তাই আজ (শুক্রবার) বিকেলে  ঘটনাস্থল গিয়ে উভয় পক্ষকে নিয়ে যেভাবেই হোক দ্রুত সমাধান করা হবে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার নূর-এ-জান্নাত রুমি অভিযোগ পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, সমস্যাটি নিরশনের জন্য ওই ইউনিয়নের চেয়ারম্যানকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা