kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৭ বৈশাখ ১৪২৮। ১০ মে ২০২১। ২৭ রমজান ১৪৪২

প্রেমে ঘনিষ্ঠতা! সালিসে অপমান, অতঃপর মৃত্যুকে আলিঙ্গন

মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি   

২ মার্চ, ২০২১ ১৭:১৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



প্রেমে ঘনিষ্ঠতা! সালিসে অপমান, অতঃপর মৃত্যুকে আলিঙ্গন

প্রতীকী ছবি

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে হাসি আক্তার নামে ১০ বছরের এক শিশু গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে কবলে জানা গেছে। প্রেমের সম্পর্ক থাকায় পারিবারিক সালিসে শিশুটিকে মারধর করে পরিবারের সদস্যরা। এতে অপমানবোধ করে শিশুটি আত্মহত্যা করে। উপজেলার আজগানা ইউনিয়নের সৈয়দপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

এ ব্যাপারে মির্জাপুর থানায় একটি মামলা হয়েছে। ঘটনার পর থেকে শিশুটির প্রেমিক মাসুম (২০) পলাতক আছেন।

এলাকাবাসী জানান, ঠাকুরগাঁওয়ের শংকৈল উপজেলার মো. হাসেম আলী পরিবার নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে মির্জাপুরের উপজেলায় ভাড়া থাকেন। একই বাসার ভাড়াটিয়া মাসুম মিয়া (২০) নামে যুবকের সঙ্গে প্রেম হয় হাসেম আলীর শিশুকন্যা হাসির। গত রবিবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) রাতে হাসিকে মাসুমের সঙ্গে অন্তরঙ্গ অবস্থায় দেখে ফেলেন তার খালু তারিকুল। ওই রাতেই পারিবারিকভাবে সালিসে হাসিকে মারধোর করে মাসুমকে সতর্ক করা হয় বলে স্থানীয়রা জানান। পরে হাসিকে নানার ঘরে নিয়ে যাওয়া হয়। রাতে হাসি ঘরের ভেতর গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে। খবর পেয়ে মির্জাপুর থানা পুলিশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্ত শেষে মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করে।

এদিকে পুলিশ মাসুমকে খুঁজে না পেয়ে হাসির খালু তারিকুল ইসলাম ও মাসুমের বন্ধু হাসান মিয়াকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে। থানায় নেওয়ার পথে হাসান পালানোর চেষ্টায় গাড়ি থেকে লাফ দেয়। এরপর আহত অবস্থায় তাকে কুমুদিনী হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। গতকাল সোমবার হাসির বাবা বাদী হয়ে মাসুমকে আসামি করে মির্জাপুর থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পুলিশের উপপরিদর্শক মো. একরামুল হকের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, প্রেমিক মাসুম পলাতক আছে। তার বন্ধু হাসানকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় আনার পথে গাড়ি থেকে লাফ দিয়ে আহত হন। ঢাকায় তার চিকিৎসা চলছে।



সাতদিনের সেরা