kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৯ বৈশাখ ১৪২৮। ২২ এপ্রিল ২০২১। ৯ রমজান ১৪৪২

জাতীয় পতাকা অবমাননায় মামলা

বরগুনা প্রতিনিধি   

১ মার্চ, ২০২১ ২২:২৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জাতীয় পতাকা অবমাননায় মামলা

জাতীয় পতাকা অবমাননার অভিযোগে বরগুনায় বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন বরগুনা জেলা পরিষদের নির্বাচিত সদস্য ও বরগুনা নারী-শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুন্যালের সহকারী প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাড. মুজাহিদ জাকির।

বরগুনার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. নাহিদ হোসেনের আদালতে আজ সোমবার মামলাটি দায়ের করা হয়েছে। আগামী ৪ মার্চ এ মামলার আদেশের জন্য দিন ধার্য করা হয়েছে।

জাতীয় পতাকার মর্যাদা সমুন্নত রাখার লক্ষে স্বাধীনতার মাসে বরগুনার এ মামলাটি বরগুনাসহ সারা দেশে সচেতনতা বৃদ্ধিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, বাদী মুজাহিদুল ইসলাম গত ২১ ফেব্রুয়ারি তিনি বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন স্বজনকে দেখে ফেরার পথে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর বরগুনা জেলা কার্যালয়ের উত্তোলিত জাতীয় পতাকা বিধিসম্মতভাবে হয়নি দেখতে পান।

একইভাবে বরগুনার স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর, জেলা সাব-রেজিস্টার কার্যালয়সহ বেশ কয়েকটি সরকারি কার্যালয়ে নিয়ম মেনে পতাকা উত্তোলন করা হয়নি বলে তাঁর দাবি। এছাড়াও বাড়িতে যাবার পথে বেসরকারি চিকিৎসা প্রতিষ্ঠান কুয়েত প্রবাসী হাসপাতাল ও  তিনি ওইসব কার্যালয়ের উত্তোলিত পতাকার ছবি মোবাইল ফোনে ধারণ করে মামলার সঙ্গে কপি সংযুক্ত করেছেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের প্রাক্তন ছাত্র অ্যাড. মুজাহিদ জাকির আইন পেশার পাশাপাশি বরগুনা জেলা পরিষদের একজন নির্বাচিত সদস্য। তিনি জানান, আসামিরা জাতীয় পতাকা আইন ১৯৭২ এর ৩ এবং ২০১০ এর ২০ নং ধারা লংঘন করেছেন।

স্বাধীন বাংলাদেশের মর্যাদা সমুন্নত রাখতে জাতীয় পতাকা উত্তোলনে গাফেলতি শাস্তিযোগ্য অপরাধ। আমি চাই এ মামলায় অভিযুক্তদের শাস্তি হোক এবং সচেতনতা ফিরুক সবার মাঝে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা