kalerkantho

শুক্রবার । ৩ বৈশাখ ১৪২৮। ১৬ এপ্রিল ২০২১। ৩ রমজান ১৪৪২

ইভিএমে শতায়ুর আশা পূরণ

চাঁদপুর প্রতিনিধি   

২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২২:৩৭ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ইভিএমে শতায়ুর আশা পূরণ

ভোট দিতে কেন্দ্রে আসেন শতায়ু জয়া রানী ঘোষ। অন্যবারে ব্যালটে ভোট দেওয়ার অভিজ্ঞতা রয়েছে তাঁর। কিন্তু এবার সেই চিত্র পাল্টেছে। ভোট হচ্ছে ইভিএমে। এতে হতাশ নয় শতায়ু এই বৃদ্ধা। সঙ্গে থাকা আরেকজন বিশ্বস্ত নারীর সাহায্য নিয়ে নিজের পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দেন তিনি।

চাঁদপুরে মতলব পৌরসভার তিন নম্বর ওয়ার্ডে জেবি সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় এই ভোট কেন্দ্রে রবিবার দুপুর ঠিক ২টায় ভোট দেন জয়া রানী ঘোষ। পাশেই ঘোষপাড়ায় তার বাসা। স্বামী প্রয়াত হয়েছেন সেই ৬০ বছর আগে। পরিবারে তিন ছেলে আর দুই মেয়ের সংসারে দুই ডজন নাতিপুতি নিয়ে এখনো বেঁচে আছেন জয়া রানী ঘোষ। 

ভোট দিয়ে জয়া রানী ঘোষ জানান, বাপু জীবনে অনেকবার ভোট দিসি। তবে এই বারের মতো ভোট আগে কহনো দেই নাই। মেশিন দেইখা খটকা লাগলেও পরে ঠিকই নিজের পছন্দের প্রার্থীগোরে ভোট দিতে পারছি। 

চাঁদপুরের মতলব ও শাহরাস্তি পৌরসভায় সকাল ৮টা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হয়ে একটানা বিকেল ৪টা পর্যন্ত চলে। জেলার দুই পৌরসভায় এই প্রথম ইভিএম পদ্ধতিতে ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়। 

এদিকে, সকাল থেকেই মতলব পৌরসভার বিভিন্ন কেন্দ্রে ভোটারদের দীর্ঘ সারি দেখা গেছে। ভোটাররা ইভিএমে ভোট দিতে পেরে বেশ স্বাচ্ছন্দ্য প্রকাশ করেন। অন্যদিকে, ভোটকেন্দ্রের একজন প্রিজাইডিং অফিসার জানান, শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত শান্তিপূর্ণ পরিবেশেই ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। আগে থেকেই টানটান উত্তেজনা বিরাজ করায় মতলবের বিভিন্ন স্থানে বিজিবি, র‌্যাব, দাঙ্গা পুলিশের বিপুল পরিমাণ সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। সংঘর্ষ এড়াতে প্রস্তুত রাখা হয়েছে বিজিবির একটি সাঁজোয়া যান।

চাঁদপুরের মতলব পৌরসভায় ২২টি কেন্দ্রে মোট ভোটার হচ্ছেন ৪৯ হাজার। মেয়র পদে চারজনসহ পুরুষ ও নারী কাউন্সিলর প্রার্থী হচ্ছেন ৪৯ জন। এরমধ্যে গত এক সপ্তাহ আগে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ান বিএনপির মেয়রপ্রার্থী এনামুল হক বাদল। তার অভিযোগ ছিল, সরকারি দলের হুমকি-ধামকির কারণে দলীয় কর্মী-সমর্থকদের রক্ষা করতে এই নির্বাচন বর্জন করেন তিনি। 

এছাড়া শাহরাস্তি পৌরসভায় মোট ভোটার হচ্ছেন ৩১ হাজার। এতে মেয়র পদে তিনজনসহ নারী ও পুরুষ কাউন্সিলর পদে ৬৯ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

চাঁদপুর জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ এবং জেলা পুলিশ সুপার মাহবুবুর রহমান বিভিন্ন ভোটকেন্দ্র পরিদর্শন করছেন। কেন্দ্রে ঘুরে সার্বিক পরিস্থিতি দেখে তারা সন্তোষ প্রকাশ করেন। তবে এখনো পর্যন্ত প্রতিদ্বন্দ্বী কোনো প্রার্থী অভিযোগ করেননি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা