kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৯ বৈশাখ ১৪২৮। ২২ এপ্রিল ২০২১। ৯ রমজান ১৪৪২

চাঁদাবাজি মামলায় কলেজ অধ্যক্ষের জেল

জামালপুর প্রতিনিধি   

২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৫:১০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চাঁদাবাজি মামলায় কলেজ অধ্যক্ষের জেল

চাঁদাবাজির মামলার রায়ে আসামি জামালপুরের ঝাউলা গোপালপুর ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ মো. মোফাজ্জল হোসেনকে দুই বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এ ছাড়াও তাকে এক লাখ টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। গতকাল বুধবার দুপুরে জামালপুরের বিশেষ জজ আদালতের বিচারক মোহাম্মদ জহিরুল কবীর এ রায় ঘোষণা করেন।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, জামালপুর সদরের ঝাউলা গোপালপুর ডিগ্রি কলেজের শিক্ষক পদোন্নতির জন্য অধ্যক্ষ মো. মোফাজ্জল হোসেন ওই কলেজের সহকারী অধ্যাপক এ বি এম ফরহাদ হোসেনসহ তিনজন শিক্ষকের কাছে ৫০ হাজার টাকা করে চাঁদা দাবি করেন। তাকে এক লাখ টাকা চাঁদা দেওয়ার পরও পদোন্নতির ব্যবস্থা না করায় ২০০৮ সালে একই কলেজের সহকারী অধ্যাপক এ বি এম ফরহাদ হোসেন বাদী হয়ে জামালপুর সদর থানায় একটি চাঁদাবাজি মামলা দায়ের করেন।

মামলাটির বিচার প্রক্রিয়ায় আটজন স্বাক্ষীর স্বাক্ষ্য গ্রহণের পর দীর্ঘ প্রায় ১৩ বছর পর গতকাল বুধবার আদালত উল্লিখিত রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণার পর দণ্ড পাওয়া অধ্যক্ষ মো. মোফাজ্জল হোসেনকে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। তার বিরুদ্ধে কলেজ তহবিলের ১২ লাখ ৬২ হাজার ৮৬৭ টাকা আত্মসাতের আরো একটি মামলা আদালতে বিচারধীন রয়েছে।
 
রাষ্ট্রপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন আইনজীবী জাহিদ আনোয়ার ও এপিপি নূরুল করিম ছোটন এবং আসামি পক্ষ সমর্থন করেন আইনজীবী আনোয়ারুল করিম শাহজাহান।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা