kalerkantho

সোমবার । ২৩ ফাল্গুন ১৪২৭। ৮ মার্চ ২০২১। ২৩ রজব ১৪৪২

পুলিশের ভ্যানচাপায় সিএনজিচালক নিহত, মোটরসাইকেলে আগুন

নবীগঞ্জ (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি   

২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৭:০৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পুলিশের ভ্যানচাপায় সিএনজিচালক নিহত, মোটরসাইকেলে আগুন

ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের হবিগঞ্জের বাহুবল উপজেলায় হাইওয়ে পুলিশের ভ্যানচাপায় তোফায়েল মিয়া(২২) নামে এক সিএনজি (অটোরিকশা) চালক নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো তিনজন। এ সময় ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে স্থানীয় সিএনজি শ্রমিক ও সাধারণ মানুষ। বিক্ষোভ চলাকালে ট্রাফিক পুলিশের একটি মোটরসাইকেলে আগুন ধরিয়ে দেয় তারা। আজ মঙ্গলবার দুপুরে সাড়ে ১২টার দিকে বাহুবল উপজেলার বাগান বাড়ি পয়েন্টে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত অটোরিকশাচালক তোফায়েল মিয়া হবিগঞ্জ সদর উপজেলার সুলতানশী গ্রামের ফজলু মিয়ার ছেলে। আহতরা হলেন- সিএনজি যাত্রী বাহুবল উপজেলার দৌলতপুর গ্রামের আব্দুল হেকিমের পুত্র আজগর আলী (৬০) ও একই গ্রামের এনামুল হকের স্ত্রী মাসুদা আক্তার (৩৫) এবং হবিগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির কর্মী মুসলিম উদ্দিন (৪০)। তাদেরকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে তোফায়েল মিয়া যাত্রীসহ সিএনজি অটোরিকশা (হবি-থ-১১-৭৪৪৮) নিয়ে বাহুবল বাজারে আসার পথে বাহুবল উপজেলা সদর সংলগ্ন বাগান বাড়ি পয়েন্টে হাইওয়ে পুলিশের ব্যারিকেড দ্রুতগতিতে অতিক্রম করেন। এ সময় হাইওয়ে পুলিশের একটি দল পুলিশভ্যান নিয়ে সিএনজিকে ধাওয়া দেয়। পরে কিছুদূর যাওয়ার পর পুলিশভ্যান ওই অটোরিকশাকে চাপা দেয়। এতে অটোরিকশাটি দুমড়ে-মুছড়ে যায় এবং ঘটনাস্থলেই সিএনজিচালক তোফায়েল নিহত হয়। এ ঘটনার পর বিক্ষুদ্ধ শ্রমিক ও জনতা ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে। এ সময় ট্রাফিক পুলিশের একটি মোটরসাইকেল পুড়িয়ে দেয় বিক্ষোভকারীরা।

বাহুবল মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ কামরুজ্জামান বলেন, ‘দুপুর দেড়টার দিকে বিক্ষুব্ধ শ্রমিক ও স্থানীয়দের সাথে আলাপ আলোচনা করার পর তারা অবরোধ তুলে নেয়। বর্তমানে মহাসড়কে যান চলাচল স্বভাবিক রয়েছে।'

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা