kalerkantho

রবিবার । ১৫ ফাল্গুন ১৪২৭। ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১। ১৫ রজব ১৪৪২

দৌলতদিয়া ঘাটে শত শত গাড়ি আটকা

গোয়ালন্দ (রাজবাড়ী) প্রতিনিধি   

২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৮:২৪ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



দৌলতদিয়া ঘাটে শত শত গাড়ি আটকা

ব্যাস্ততম দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌপথে রো রো (বড়) ফেরির সংকট সৃষ্টি হয়েছে। চলাচলকারী অনেক ফেরি ঘন ঘন বিকল হয়ে পড়ায় সংকট আরো বাড়ছে। ফলে স্বাভাবিক ফেরিপারাপার ব্যাহত হওয়ায় দৌলতদিয়া ঘাটে লেগে থাকা যানজট পরিস্থিতির তেমন কোনো উন্নতি হয়নি। আজও (সোমবার) ওই ঘাটে আটকা পড়ে যাত্রীবাহী বাস, পণ্যবাহী ট্রাকসহ ঢাকাগামী শত শত বিভিন্ন গাড়ি। এতে দৌলতদিয়া ঘাটের জিরোপয়েন্ট থেকে মহাসড়কের ইউনিয়ন বোর্ড পর্যন্ত সাড়ে ৩ কিলোমিটার রাস্তায় দীর্ঘ যানজট সৃষ্টি হয়। ঘণ্টার পর ঘণ্টা যানজটে আটকে থাকায় বিভিন্ন গাড়ির চালকসহ সাধারণ বাসের যাত্রী, বিশেষ করে নারী ও শিশুরা সবচেয়ে বেশি দুর্ভোগের শিকার হন।

বিআইডাব্লিউটিসির দৌলতদিয়া ঘাট অফিস ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, দক্ষিণাঞ্চলের সঙ্গে রাজধানী ঢাকার সড়ক যোগাযোগে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া একটি গুরুত্বপূর্ণ নৌপথ। প্রতিদিন সেখানে কয়েক হাজার বিভিন্ন গাড়ি ফেরিপারাপার হয়। ঘাট পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে এই নৌপথে ছোট ফেরির পাশাপাশি কমপক্ষে ১২টি রো রো (বড়) ফেরি সার্বক্ষণিক সচল থাকা প্রয়োজন। কিন্তু বর্তমান সেখানে বড় ফেরি রয়েছে মাত্র ৯টি। এর অধিকাংশ ফেরি অনেক পুরনো। সার্বক্ষণিক সচল রাখতে গিয়ে ইঞ্জিন সমস্যাসহ বিভিন্ন যান্ত্রিক ত্রুটি দেখা দেওয়ায় অনেক ফেরি প্রায়ই বিকল হয়ে পড়ছে। পরে বিকল ফেরিগুলো ওয়ার্কশপে নিয়ে 'জোড়াতালি দিয়ে' মেরামত করে কোনোরকমে সচল করা হচ্ছে। প্রয়োজনীয় সংখ্যক বড় ফেরি না থাকার পাশাপাশি চলাচলকারী ফেরিগুলো ঘন ঘন বিকল হওয়ার ফলে এই নৌপথে ফেরির সংকট লেগেই থাকছে। এদিকে ফেরিসংকটের কারণে পারাপার ব্যাহত হওয়ায় উভয় ঘাটে যানজট সৃষ্টি হচ্ছে।

ঘাটসংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্র জানিয়েছে, রাজবাড়ীর গোয়ালন্দের দৌলতদিয়া ঘাটে গত দুই দিন যাবত (রবিবার সকাল থেকে) লেগে থাকা যানজট পরিস্থিতির তেমন কোনো উন্নতি হয়নি। সেখানে ফেরিপারের অপেক্ষায় ঘণ্টার পর ঘণ্টা আটকা পড়ে থাকছে ঢাকাগামী যাত্রীবাহী বাস, পণ্যবাহী ট্রাকসহ শত শত বিভিন্ন গাড়ি। আজ সোমবার ঘাটের জিরোপয়েন্ট থেকে দৌলতদিয়া-খুলনা মহাসড়কের ইউনিয়ন বোর্ড পর্যন্ত সাড়ে তিন কিলোমিটার রাস্তায় দীর্ঘ যানজট লেগে থাকে। মাত্র তিন কিলোমিটার দীর্ঘ নৌপথ পাড়ি দিতে দৌলতদিয়া ঘাটে এসে যানজটে আটকে থাকায় বিভিন্ন বাসের সাধারণ যাত্রী, বিশেষ করে নারী ও শিশুরা এ সময় সবচেয়ে বেশি দুর্ভোগের শিকার হন।

রাজবাড়ী জেলা ট্রাফিক পুলিশ পরিদর্শক (টিআই) তারক চন্দ্র পাল জানিয়েছেন, দৌলতদিয়া ঘাটে সৃষ্ট যানজট পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে জেলা পুলিশ প্রশাসনের নির্দেশক্রমে দৌলতদিয়া ঘাটগামী অপচনশীল পণ্যবোঝাই তিন শতাধিক ট্রাক ও কাভার্ড ভ্যান রাজবাড়ী সদর থানার গোয়ালন্দ মোড় এলাকায় আটকে রাখা হয়েছে। ঘাট পরিস্থিতি বিবেচনায় পর্যায়ক্রমে ওই ট্রাকগুলো ছেড়ে দেওয়া হবে। 

বিআইডাব্লিউটিসির দৌলতদিয়া ঘাটের সহকারী ব্যাবস্থাপক (বাণিজ্য) মাহবুব হোসেন কালের কণ্ঠকে বলেন, একদিকে রো রো (বড়) ফেরির সংকট, অপরদিকে ঢাকাগামী বিভিন্ন গাড়ির চাপ বেড়ে স্বাভাবিক পারাপার ব্যাহত হওয়ায় দৌলতদিয়া ঘাটে যানজট পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়ে আছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে বর্তমান ছোট-বড় মোট ১৬টি ফেরি সার্বক্ষণিক সচল রয়েছে। তবে, মানুষের দুর্ভোগ কমাতে যাত্রীবাহী বাস, মাইক্রোবাস ও প্রাইভেট কার অগ্রাধিকার ভিত্তিতে পারাপার করা হচ্ছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা