kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৭ ফাল্গুন ১৪২৭। ২ মার্চ ২০২১। ১৭ রজব ১৪৪২

ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে গণবদলি চান কোম্পানীগঞ্জ থানার ১০ কর্মকর্তা

নিজস্ব প্রতিবেদক, নোয়াখালী   

১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২১:০৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে গণবদলি চান কোম্পানীগঞ্জ থানার ১০ কর্মকর্তা

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ থানায় কর্মরত ১০ পুলিশ অফিসার ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে একযোগে গণবদলির আবেদন করেছেন। এতে থানায় এক অস্বস্তিকর পরিবেশ বিরাজ করছে।

বদলির আবেদনকারী কর্মকর্তারা হলেন এসআই সরোজ রতন আচার্য্য, এসআই জাকির হোসেন, এসআই শাহীদ হোসাইন, এসআই মো. নিজাম উদ্দিন, এসআই এমরান হোসাইন, এসআই রিয়াদুল হাসান, এএসআই বাবুল মিয়া বেগ, এএসআই মো. আবদুল জাহের, এএসআই মো. জহির হোসেন ও এএসআই রবিউল আলম।

এঁরা সকলেই ব্যক্তিগত সমস্যা দেখিয়ে বদলির আবেদন করেছেন। তবে, অপর একটি সূত্র থেকে জানা যায়, চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে তাঁরা নিজেদের মানিয়ে নিতে না পেরে অন্যত্র চলে যাওয়ার চেষ্টা করছেন।

কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর জাহেদুল হক রনি বলেন, এসআই ও এএসআইদের মধ্যে মোট ১০ জনের বদলির আবেদন তার কাছে জমা পড়েছে। তিনি বিষয়টি নিয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বদলির আবেদনকারী এক কর্মকর্তা বলেন, কোম্পানীগঞ্জ থানা এলাকায় চলমান পরিস্থিতিতে সম্মানের সাথে চাকরি করা এখন দুষ্কর। যে কারণে আমরা সম্মান থাকতে চলে যেতে চাচ্ছি।

উল্লেখ্য, নোয়াখালী-৪ (সদর ও সুবর্ণচর) আসনের সংসদ একরামুল করিম চৌধুরী ও ফেনী-৩ আসনের সংসদ সদস্য নিজাম উদ্দিন হাজারীর অপরাজনীতি বন্ধসহ তাদের টেন্ডার বাণিজ্য, চাকরি বাণিজ্য ও কমিশন বাণিজ্য বন্ধের দাবিতে গত ২ মাস ধরে সেতুমন্ত্রীর ছোটভাই বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা আন্দোলন করে আসছেন। এ সময় তিনি ওই দুই নেতার সাথে আঁতাত করার অভিযোগ এনে নোয়াখালীর জেলা প্রশাসক খোরশেদ আলম খান, পুলিশ সুপার মো. আলমগীর হোসেন, কোম্পানীগঞ্জ থানার ওসি মীর জাহেদুল হক রনি এবং পরিদর্শক (তদন্ত) মো. রবিউল হকের প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে আসছেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা