kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৭ ফাল্গুন ১৪২৭। ২ মার্চ ২০২১। ১৭ রজব ১৪৪২

বরিশালে পৌঁছেছে তিন লাখ ১২ হাজার করোনা ভ্যাকসিন

বরিশাল অফিস   

৩০ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:৩৭ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বরিশালে পৌঁছেছে তিন লাখ ১২ হাজার করোনা ভ্যাকসিন

বরিশালে বিভাগের ৬ জেলার মধ্যে পিরোজপুর বাদে বাকী ৫ জেলার জন্য তিন লাখ ১২ হাজার  করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন পৌঁছেছে। শুক্রবার (২৯ জানুয়ারি) বেলা ১২টায় বরিশাল সিভিল সার্জন কার্যালয়ে ঢাকা থেকে বেক্সিমকো কম্পানির একটি ফ্রিজার ভ্যানে করে ভ্যাকসিনগুলো পৌঁছায়। পিরোজপুরে জন্য আগামী ৩১ জানুয়ারি ভ্যাকসিন আসবে বলে বরিশাল বিভাগীয় স্বাস্থ্য দপ্তর জানিয়েছে।

বরিশাল বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক বাসুদেব কুমার দাস বলেন, শুক্রবার দুপুরে প্রথম ভাগে বিভাগের ৬ জেলার মধ্যে পিরোজপুর ব্যতিত বাকী ৫ জেলায় মোট ২৬ কার্টনে এক হাজার ২০০ ভায়েলের ৩ লাখ ১২ হাজার ডোজ করোনার ভ্যাকসিন বা টিকা এসে পৌঁছেছে। যার মধ্যে বরিশাল জেলায় ১০ কার্টনে ১ লাখ ২০ হাজার, ঝালকাঠিতে ১ কার্টনে ১২ হাজার, ভোলায় ৫ কার্টনে ৬০ হাজার, পটুয়াখালীতে ৪ কার্টনে ৪৮ হাজার ও বরগুনায় ২ কার্টনে ২৪ ডোজ করোনার ভ্যাকসিন রয়েছে।

এছাড়া ৪ কার্টন অর্থাৎ ৪৮ হাজার ডোজ ভ্যাকসিন বিভাগীয় স্বাস্থ্য কার্যালয়ের অধীনে রাখা হবে। কোথায়ও সংকট থাকলে সেখানে যাতে জরুরী ভিত্তিতে পাঠানো যায়। পিরোজপুর জেলার জন্য ৩ কার্টনে ৩৬ হাজার ডোজ ভ্যাকসিন খুলনা থেকে ৩১ জানুয়ারি এসে পৌঁছাবে বলে আশা করা যাচ্ছে।  

তিনি আরো বলেন, নার্সদের প্রশিক্ষণসহ সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। বরিশাল বিভাগের ৬ জেলায় ভ্যাকসিনেটর ও স্বেচ্ছাসেবক মিলে মোট ৮৮৮ জন করোনার ভ্যাকসিন প্রদান কার্যক্রমের সঙ্গে যুক্ত থাকবেন। এর মধ্যে ১৩২ জন ভ্যাকসিনেটর ও ৭৫৬ জন স্বেচ্ছাসেবক থাকবেন। প্রতি টিমে দুজন উচ্চ প্রশিক্ষিত ভ্যাকসিনেটর ও ৪ জন স্বেচ্ছাসেবক দায়িত্ব পালন করবেন। এর মধ্যে শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ৪টি টিম, প্রতিটি জেলার জেনারেল হাসপাতালে ৮টি টিম, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে দুটি করে টিম দায়িত্ব পালন করবেন। 

এছাড়া অতিরিক্ত দায়িত্বে সিভিল সার্জন কার্যালয়ে একটি টিম স্ট্যান্ডবাই রাখা হবে। আশা করা যায় আগামী মাসের (ফেব্রুয়ারি মাসে) প্রথম সপ্তাহের মধ্যে আনুষ্ঠানিকভাবে টিকা প্রদান কর্মসূচির উদ্বোধন করা যাবে।

তিনি জানান, অগ্রাধিকার ভিত্তিতে ১৫ ক্যাটাগরির মানুষকে টিকা প্রদান করাবে। তাদের মধ্যে  সামরিক-বেসামরিক, সরকারি চাকরিজীবী, স্বাস্থ্যকর্মী, জনপ্রতিনিধি, মুক্তিযোদ্ধা, উন্নয়ন সংস্থার কর্মী এবং সেবামূলক প্রতিষ্ঠানে কর্মরতরা। বরিশালের সিভিল সার্জন ডা. মনোয়ার হোসেন বলেন, বরিশাল জেলার চাহিদা অনুযায়ী ১ লাখ ২০ হাজার ডোজ টিকা শুক্রবার বুঝে নেওয়া হয়েছে। যা সিভিল সার্জন অফিসের আইস লাইনড রেফ্রিজারেটরে (আইএলআর) সংরক্ষণ করা হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা