kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৪ ফাল্গুন ১৪২৭। ৯ মার্চ ২০২১। ২৪ রজব ১৪৪২

৭ লাখ টাকায় ভুয়া নিয়োগপত্র! শশুরবাড়ি থেকে প্রতারক গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুড়া   

২৯ জানুয়ারি, ২০২১ ২১:৪০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



৭ লাখ টাকায় ভুয়া নিয়োগপত্র! শশুরবাড়ি থেকে প্রতারক গ্রেপ্তার

বগুড়ায় সেনাবাহিনীতে সৈনিক পদে চাকরির ভুয়া নিয়োগ দেওয়া প্রতারক চক্রের মূল হোতা শাহীন হোসেন শফিকে (৩২) গ্রেপ্তার করেছে ডিবি পুলিশ। শফিক পঞ্চগড় জেলার দেবীগঞ্জের আলিয়ার খাঁ গ্রামের আজিজার রহমানের ছেলে। শুক্রবার ভোরে গাইবান্ধার সাঘাটার জুম্মারবাড়ী গ্রামে শ্বশুরবাড়ি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

বগুড়া সিআইডির সহকারী পুলিশ সুপার হাসান শামীম ইকবাল এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, সেনাবাহিনীর সৈনিক পদে চাকরি দেওয়ার কথা বলে বগুড়ার গাবতলী থানা এলাকার বাহাদুরপুর গ্রামের সোলায়মান আকন্দের ছেলে রাসেল মিয়ার কাছ থেকে ২০১৯ সালের অক্টোবর মাসের বিভিন্ন সময় পর্যায়ক্রমে নগদ এবং বিকাশের মাধ্যমে মোট ৭ লাখ ৩০ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয় একটি পেশাদার প্রতারক সিন্ডিকেট। পরে ভুয়া নিয়োগপত্রও প্রদান করে। নিয়োগপত্র পেয়ে রাসেল মিয়া ঢাকা সেনানিবাসে যোগদান করতে গিয়ে জানতে পারে তার নিয়োগপত্র সঠিক না (ভুয়া)। টাকা হাতিয়ে নেওয়া প্রতারক সিন্ডিকেটের সক্রিয় সদস্য শাহিন ওরফে শফিফসহ আরো কয়েকজন প্রতারক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে গা ঢাকা দেয়।

সিআইডির সহকারী পুলিশ সুপার আরো জানান, ভুক্তভোগী রাসেল মিয়ার বড়ভাই আমিরুল ইসলাম বাদী হয়ে ২০১৯ সালের ৪ নভেম্বর বগুড়া সদর থানায় মামলা (নং ১৭) দায়ের করেন। ২২ নভেম্বর মামলার তদন্তভার গ্রহণ করে সিআইডি। গ্রেপ্তারকৃত আসামিকে শুক্রবার বগুড়ার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে-৪ হাজির করে সিআইডি। বিচারক আসমা মাহমুদের আদালতে ফৌজদারী কার্যবিধি আইনের ১৬৪ ধারায় মামলার সকল তথ্য প্রকাশ করে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে প্রতারক সিন্ডিকেটের মূলহোতা শাহিন ওরফে শফিক।

মামলার তদন্তকারী অফিসার বগুড়া সিআইডির পুলিশ পরিদর্শক এটিএম শিফাতুল মাজদার জানান, বিশেষ পুলিশ সুপার মোহাম্মদ কাউছার সিকদারের প্রত্যক্ষ দিকনির্দেশনায় তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহারসহ বিজ্ঞান ভিত্তিক তদন্ত করে মামলার অন্যতম প্রধান আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা