kalerkantho

রবিবার। ২২ ফাল্গুন ১৪২৭। ৭ মার্চ ২০২১। ২২ রজব ১৪৪২

একদিন পর জামিন

কিস্তির খড়্গ : এক বছরের শিশু নিয়ে মা জেলে

দুর্গাপুর (রাজশাহী) প্রতিনিধি   

২৬ জানুয়ারি, ২০২১ ১৭:৩৫ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



কিস্তির খড়্গ : এক বছরের শিশু নিয়ে মা জেলে

রাজশাহী দুর্গাপুরে এনজিওর কিস্তির টাকা দিতে না পারায় এক বছরের শিশুসহ মাকে গ্রেপ্তার করে দুর্গাপুর থানা পুলিশ। মানবিক এই বিষয়ে এলাকাবাসীর মাঝে ব্যাপক ক্ষোভ ও অসন্তোষের সৃষ্টি হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃত নিলুফা বেগম উপজেলার মাড়িয়া গ্রামের হতদরিদ্র দিনমজুর আব্দুস সালামের স্ত্রী। তবে গ্রেপ্তারকৃত নিলুফাকে জামিন দেন আদালত।

আজ মঙ্গলবার রাজশাহী যুগ্ম জেলা জজ তৃতীয় আদালতে হাজির হয়ে জামিন আবেদন করলে বিচারক তার জামিন আবেদন মঞ্জুর করেন। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন আসামির আইনজীবী হিমেল হোসনাইন। গত রবিবার গভীর রাতে গ্রেপ্তার হন নিলুফা বেগম।

নিলুফার পরিবার জানায়, সাংসারিক টানাপড়েনে প্রায় দুই বছর আগে উপজেলা সদরে একটি বেসরকারি 'বীজ' নামক এনজিও থেকে নিলুফা জনতা ব্যাংক দুর্গাপুর শাখার একটি চেক এনজিওতে জমা দিয়ে মাসিক কিস্তিতে ১ লাখ টাকা ঋণ নেন। তারপর একটানা ৪ কিস্তি পরিশোধ করেন। এরপর হঠাৎ নিলুফার স্বামী সালাম অসুস্থ হয়ে পড়লে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। পরে এলাকাবাসীর সাহায্য-সহযোগিতায় রামেক হাসপাতাল থেকে দেড় মাস চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফেরে সালাম। চিকিৎসা শেষে বাড়ি ফেরা মাত্র ওই এনজিওর কর্মী ও ম্যানেজার তাদের বাড়িতে গিয়ে ঋণ পরিশোধ করতে বলেন। সেই সঙ্গে ঋণ পরিষদ না করলে তারা মামলারও হুমকি প্রদান করেন।

পরে এনজিওর চাপের মুখে মামলার ভয়ে এলাকার দাদন ব্যবসায়ীর কাছ থেকে চড়া সুদে আবারো টাকা নিয়ে এনজিওর ম্যানেজারকে আরো একটি কিস্তি দেন নিলুফা দম্পতি। পরের মাসে দাদন ব্যবসায়ীর চাপে সুদের টাকা পরিশোধ করতে গিয়ে এনজিওর কিস্তি দিতে অপারগতা প্রকাশ করে তারা। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে 'বীজ' এনজিওর দুর্গাপুর শাখার ব্যবস্থাপক মহিরুল ইসলাম আব্দুস সালামের স্ত্রী নিলুফার বেগমের জমা রাখা জনতা ব্যাংকের চেক ডিজনার করে নিলুফাকে আসামি করে আদালতে মামলা করে।

এরপর দেশে মহামারি কভিড-১৯ করোনাভাইরাসের প্রভাব আসলে পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি আব্দুস সালাম দিশেহারা হয়ে পড়ে। টাকার অভাবে শহরে গিয়ে আদালতে হাজিরা দিতে না পারায় বিজ্ঞ আদালত নিলুফার নামে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করে। ২৪ জানুয়ারি রবিবার রাত ১২টার দিকে দুর্গাপুর থানা পুলিশ উপজেলার মাড়িয়া গ্রামের নিজবাড়ি থেকে সালামের স্ত্রী নিলুফাকে এক বছরের শিশুসহ গ্রেপ্তার করে। দুধের শিশুটিকে নিয়ে মা নিলুফা বেগম থানায় রাতভর আটক থাকার পর গত সোমবার ওই কন্যাশিশুসহ নিলুফা বেগমকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করে থানা পুলিশ।

জানতে চাইলে দুর্গাপুর থানার ওসি হাশমত আলী বলেন, আদালত থেকে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা থানায় আসায় পুলিশ নিলুফাকে  গ্রেপ্তার করেছে। এ বিষয়ে বেসরকারি এনজিও 'বীজ'-এর দুর্গাপুর শাখার ব্যবস্থাপক মহিরুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনা করে তার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এতে তিনি যদি গ্রেপ্তার হন তাহলে আমাদের কিছু করার নেই।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা