kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৯ ফাল্গুন ১৪২৭। ৪ মার্চ ২০২১। ১৯ রজব ১৪৪২

জানাজায় অংশ নেওয়া স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থীর ওপর হামলা

সরিষাবাড়ী (জামালপুর) প্রতিনিধি   

২৫ জানুয়ারি, ২০২১ ১৫:৫৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জানাজায় অংশ নেওয়া স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থীর ওপর হামলা

জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে বিএনপির স্বতন্ত্র বিদ্রোহী প্রার্থী (নারিকেল গাছ) ফজলুল হক খানের ওপর নৌকা প্রতীকের মেয়র প্রার্থী মনির উদ্দিনের সমর্থকদের হামলার অভিযোগ উঠেছে। আজ সোমবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে কামরাবাদ ঝিনাই ফিলিং স্টেশন এলাকায় আ. কদ্দুছের জানাজার সময় এ ঘটনা ঘটে। আহত ফজলুল হক খানকে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়েছে।

স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, আগামী ৩০ জানুয়ারি তৃতীয় ধাপে সরিষাবাড়ী পৌর নির্বাচনে বিএনপির বিদ্রোহী মেয়র প্রার্থী ফজলুল হক খান সকাল সাড়ে ১০টায় তার নিজ বাড়ি থেকে বের হয়ে কামরাবাদ পশ্চিম পাড়া কাচপুর মালেক জুট মিলের সাবেক ম্যানেজার মরহুম আ. কদ্দুছের জানাজায় অংশ গ্রহণের জন্য রওনা হন। মৃত ব্যক্তির বাড়ির পাশে ঝিনাই ফিলিং স্টেশন এলাকায় পৌঁছলে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী (নৌকা প্রতীক) মনির উদ্দিনের ভাতিজা গুদু মিয়াসহ ২০/২৫ জন সমর্থক পেছন থেকে অতর্কিত ফজলুল হক খানের ওপর হামলা করে। এ সময় জানাজায় অংশগ্রহণকারী মুসল্লিরা আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়।

আহত স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী ফজলুল হক খানের সঙ্গে মোবাইলে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, সোমবার সকালে বাড়ি থেকে বের হয়ে কামরাবাদ ঝিনাই ফিলিং স্টেশনস্ংলগ্ন আবদুল কদ্দুস মিয়ার জানাজায় যাই। জানাজায় দাঁড়ালে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মনির উদ্দিনের ভাতিজা গুদুসহ ২০/২৫ জন আমার ওপর হামলা করে। হামলায় মাথা ও চোখ রক্তাক্ত করে দিয়েছে। ময়মনসিংহ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য যাচ্ছি। থানা পুলিশকে জানানো হয়েছে।

আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী মনির উদ্দিনের সঙ্গে মোবাইলে যোগাযোগ করা হলে তিনি এ বিষয়ে জানান, আমি কিছুই জানি না। তা ছাড়া আমাকে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্যই কে বা কারা ঘটনাটি সাজিয়েছে। সরিষাবাড়ী থানার ওসি আবু মো. ফজলুল করীম বলেন, স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থীকে মারধরের খবর শুনে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। মারধরের সাথে জড়িতদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা