kalerkantho

রবিবার। ২২ ফাল্গুন ১৪২৭। ৭ মার্চ ২০২১। ২২ রজব ১৪৪২

জয়ের শপথে বলীয়ান ঐক্যবদ্ধ আওয়ামী লীগ

ত্রিশাল (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি   

২৪ জানুয়ারি, ২০২১ ১৯:৪৬ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



জয়ের শপথে বলীয়ান ঐক্যবদ্ধ আওয়ামী লীগ

বাংরাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও ময়মনসিংহ বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা শফিউল আলম নাদেল  বলেছেন, বর্তমান সরকার জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে বিশ্বের দরবারে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে। এটি সম্ভব হয়েছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকা ও শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বের জন্য। তাই এই উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে সকল পর্যায়ের নির্বাচনে নৌকা মনোনীত প্রার্থীকে বিজয়ী করতে হবে। নৌকা প্রতীককে বিজয়ী করতে জয়ের শপথে বলিয়ান ঐক্যবদ্ধ ত্রিশাল উপজেলা আওয়ামী লীগ।

তিনি রবিবার দুপুরে ত্রিশাল পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আলহাজ নবী নেওয়াজ সরকারকে বিজয়ী করার লক্ষ্যে ত্রিশাল উপজেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত বর্ধিত সভায় এসব কথা বলেন।

স্থানীয় নজরুল অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত এ বর্ধিত সভায় শুরুতে খণ্ড খণ্ড মিছিলে বিভিন্ন গ্রুপের নেতাকর্মীরা মিছিল নিয়ে সভাবেশস্থলে হাজির হয়ে নৌকাকে বিজয়ী করার লক্ষ্যে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার জন্য স্লোগান দিতে থাকেন।

আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল আলম নাদেলের সভাপতিত্বে জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আহম্মদ আলী আকন্দের পরিচালনায় বিশেষ বর্ধিত সভায় বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য রেমন আড়েং, ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সাংসদ ত্রিশাল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল মতিন সরকার, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কদ্দুছ, জেলা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট জালাল উদ্দিন খান, উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা আবুল কালাম, এ এন এম শোভা মিয়া আকন্দ, জিয়াউল হক সবুজ, আশরাফুল ইসলাম, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবীর আকন্দ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাহমুদা খানম রুমা, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি জাহিদুল ইসলাম জুয়েল সরকার, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের উপকমিটির সদস্য নুরুল আলম মিলন পাঠান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মানিত সদস্য ইকবাল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা, উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি মেছবাহুল আলম উজ্জল, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক ইব্রাহিম খলিল শান্ত।

উপজেলা আওয়ামী লীগের ২০১২ সালে গঠিত আহ্বায়ক কমিটি ও ২০০২ সালে গঠিত পূর্ণাঙ্গ কমিটি দ্বন্দ্বে উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের কারো বর্তমান পদ ব্যবহার করা হয়নি। এ ব্যাপারে দায়িত্বপ্রাপ্ত সাংগঠনিক সম্পাদক নাদেল বলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক কমিটি নিয়ে কিছু জটিলতা থাকা ও দীর্ঘদিন সম্মেলন না হওয়ায় যে সমস্যা সৃষ্টি হয়েছে পৌর নির্বাচনে মনোনীত প্রার্থীর কাজ করতে গিয়ে কোনো প্রভাব না পরে সে জন্য আমি নিজে সভাপতি ও জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদকের পরিচালনায় উপজেলা আওয়ামী লীগের সকল স্তরের নেতাকর্মীদের নিয়ে সাংগঠনিক জটিলতা পরিহার করে বিশেষ বর্ধিত সভা করা হয়েছে। নৌকাকে বিজয়ী করতে ঐক্যবদ্ধ কাজ করার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন নেতাকর্মীরা। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা