kalerkantho

রবিবার। ২২ ফাল্গুন ১৪২৭। ৭ মার্চ ২০২১। ২২ রজব ১৪৪২

পরিবারের দাবি- পরিকল্পিত হত্যা

নিখোঁজ ব্যক্তির লাশ মিলল নির্জন পুকুরে

রাউজান (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি   

২৩ জানুয়ারি, ২০২১ ১৯:২২ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



নিখোঁজ ব্যক্তির লাশ মিলল নির্জন পুকুরে

চট্টগ্রামের রাউজানে রাতে দোকান থেকে বের হয়ে নিখোঁজ হওয়া জামাল উদ্দিনের (৪২) লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ ২৩ জানুয়ারি শনিবার বেলা সাড়ে ১১টায় পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ডের পালিত পাড়ার কালুপদ ডাক্তারের বাড়ির পেছনের নির্জন পুকুর থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। নিহত জামাল উদ্দিন রাউজান পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের ছিটিয়াপাড়া এলাকার সুলতানপুর গ্রামের খুলুন সিকদার বাড়ির মৃত সিদ্দিক আহমেদের ছেলে। নিহতের বাড়ি থেকে মৃতদেহ পাওয়া পুকুরটির দূরত্ব আধাকিলোমিটার।

নিহত জামাল উদ্দিনের স্ত্রী রওশন আরা বেগম বলেন, শুক্রবার জুমার নামাজের পর জামাল উদ্দিনসহ সপরিবার একটি সামাজিক অনুষ্ঠানে গিয়েছিলেন। সেখান থেকে এসে সন্ধ্যা ৬টার দিকে জামাল উদ্দিন তার কর্মস্থল মুন্সিরঘাটাস্থ একটি গ্যাস সিলিন্ডারের দোকানে চলে যান। প্রতিদিন রাত ৯টায় বাসায় ফিরলেও শুক্রবার আর ফেরেননি। মুঠোফোনে বার বার কল করা হলেও রিসিভ হয়নি। সম্ভাব্য সব জায়গায় খোঁজাখুঁজি করেও সন্ধান পাইনি রাতভর। রওশান আরার দাবি- এটি একটি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড। জমিসংক্রান্ত বিষয়ে বড় ভাই আবদুল খালেক, আবদুল আজিজ ও ভাগিনা বখতেয়ারের সাথে পূর্বশত্রুতা ছিল, এ কারণে হত্যা করা হতে পারে। জায়গার বিরোধ নিয়ে ভাই আবদুল আজিজ ও বখতেয়ার আমার স্বামীকে ২ মাস আগে মেরেছিল।

এদিকে মেজ ভাই আবদুল আজিজ বলেন, আমাদের ভাইদের মধ্যে যে সম্পত্তি বিরোধ ছিল তা স্থানীয় কাউন্সিলর অ্যাডভোকেট সমীর দাশের মধ্যস্থতায় মিটে গেছে। এখন কোনো বিরোধ নেই। নিহতের বড় ছেলে সালা উদ্দিন বলেন, বাবা কিভাবে মারা গেছে সেটা আমি বলতে পারব না। এটি পুলিশ তদন্ত করবে।

এসআই মো. ইসমাইল জানান, খবর পেয়ে নির্জন এলাকার একটি পুকুর থেকে লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। শরীরে আঘাতের চিহ্ন নেই। মোবাইল ও জুতা পুকুর পাড় থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য লাশ মর্গে পাঠিয়েছি। পরিবার মামলা দিলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তবে আপাতত একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে। এদিকে একটি সূত্রের ধারণা নিহত জামাল উদ্দিনের নেশা করার অভ্যাস ছিল। হয়তো মধ্যপ পান করে সে পুকুরে পড়ে মারা যেতে পারে।

জামাল সুলতানপুর ট্রেডার্সের গ্যাস ডিলারের সাপ্লাই কর্মী ছিলেন। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নিহত জামাল উদ্দিন তিন ভাইয়ের মধ্যে সর্বকনিষ্ঠ। তিনি ২ ছেলে ১ মেয়ে সন্তানের জনক।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা