kalerkantho

শনিবার । ২১ ফাল্গুন ১৪২৭। ৬ মার্চ ২০২১। ২১ রজব ১৪৪২

বাঘা স্বাস্থ্যকেন্দ্র সংস্কারে ধীরগতি, বিপাকে ডাক্তার ও রোগী

বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি   

২১ জানুয়ারি, ২০২১ ১৯:৩৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাঘা স্বাস্থ্যকেন্দ্র সংস্কারে ধীরগতি, বিপাকে ডাক্তার ও রোগী

রাজশাহীর বাঘা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেরামত ও সংস্কার কাজ শুরু হয়েছে ১৪ মাস পূর্বে। এটি সম্পন্ন করার মেয়াদ ছিল ৬ মাস। বর্তমানে কাজের ৪০ শতাংশ শেষের পথে। বাকি ৬০ ভাগ কাজ কবে শেষ হবে তা বলতে নারাজ ঠিকাদার। 'চাইলে অভিযোগ করতে পারেন' বলে মন্তব্য করেন তিনি। এ অবস্থায় একদিকে স্বাস্থ্যসেবা যেমন ব্যাহত হচ্ছে, অপরদিকে বিপাকে রয়েছেন চিকিৎসকগণ। কারণ তাদের এখন শিক্ষার্থীদের ন্যায় গাদাগাদি করে অফিস করতে হচ্ছে।

সরেজমিন বৃহস্পতিবার (২১ জানুয়ারি) দুপুরে বাঘা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে দেখা গেছে, একটি কক্ষে তিনজন ডাক্তার চিকিৎসা দিচ্ছেন। কারণ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেরামত ও সংস্কার কাজের জন্য প্রতিটি রুম এখন জরাজীর্ণ। এতে করে একদিকে যেমন ডাক্তারগণ বিড়ম্বনা পোহাচ্ছেন, অপরদিকে বিপাকে রোগীরা। চলছে টাইলস বসানো থেকে শুরু করে সেনিটেশান, বিদ্যুৎ সরঞ্জম ও পানি সরবরাহের কাজ।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা আক্তারুজ্জামান বলেন, ৫০ শয্যাবিশিষ্ট পুরাতন এই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি মেরামত ও সংস্কারের জন্য ২০১৯ সালে ৬৬ লাখ টাকা টেন্ডার হয়। এই কাজটি পান সিরাজগঞ্জ জেলার নুর এন্টারপ্রাইজ নামে একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। পরে ক্রয়সূত্রে জানুয়ারি ২০২০ এ কাজটি শুরু করেন রাজশাহী জেলার বানেশ্বর এলাকার  ঠিকাদার আকাশ। তিনি অত্যান্ত ধীরগতিতে এ কাজ করছেন। মানও বিশেষ ভালো নয়। মাঝখানে পানি সরবরাহ বন্ধ ছিল। এ নিয়ে রোগীদের চরম দুর্ভোগ গেছে। তিনি বলেন, ঠিকাদারকে দ্রুত কাজ সম্পন্ন করার কথা বললে পরের দিন লেবার সংখ্যা আরো কমে যায়। এ বিষয়ে তিনি কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছেন।

ঠিকাদার আকাশ আলীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, কাজের সময়সীমা বাড়ানো হয়েছে। তবে সেই বর্ধিত কাগজ তিনি দেখাতে পারেননি। 'যেভাবে কাজ চলছে সেভাবেই চলবে' বলে জানান তিনি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা