kalerkantho

সোমবার । ১১ মাঘ ১৪২৭। ২৫ জানুয়ারি ২০২১। ১১ জমাদিউস সানি ১৪৪২

ভুলে হত্যা? চালকের আসনে বসাই কাল হলো সিফাতের

রাজবাড়ী প্রতিনিধি   

১৪ জানুয়ারি, ২০২১ ১৭:৫৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভুলে হত্যা? চালকের আসনে বসাই কাল হলো সিফাতের

নিহত সিফাত

প্রতিপক্ষের ধারনা ছিল মোটরসাইকেল চালকই তাদের শত্রু। তাই মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে ধারালো অস্ত্র, লাঠি ও হাতুড়ি দিয়ে কুপিয়ে এবং পিটিয়ে জখম করে। কিন্তু ওই মোটরসাইকেল চালক ছিল মোটরসাইকেল মালিকের প্রতিবেশী। শখের বসে মোটরসাইকেল চালাতে গিয়েই হামলার শিকার হয়ে মৃত্যু হয়েছে সাজেদুর রহমান সিফাতের (১৯)। বুধবার রাত ৮টার দিকে চিকিৎসাধীন ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়। সিফাত রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলার হাবাসপুর ইউনিয়নের কাচারীপাড়া গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে।সে রাজবাড়ীর পাংশা সরকারি কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করেছে।

সিফাতের বন্ধু আব্দুর রাজ্জাক জানান, পাংশা উপজেলার হাবাসপুর ইউনিয়নের কাচারীপাড়া বাজার এলাকার শহিদ মন্ডলের ছেলে স্বপন মন্ডলের সঙ্গে একই গ্রামের ওয়াজেদ প্রামাণিকের ছেলে সেলিম প্রামানিকের (৩২) বিরোধ ছিলো। 

মঙ্গলবার রাতে পার্শ্ববর্তী চরঝিকুরী গ্রামে ব্যাডমিন্টন প্রতিযোগিতা খেলা দেখতে যায় সিফাত। ফেরার পথে নিজ গ্রামের স্বপন মন্ডলের সঙ্গে দেখা হয় তার। এ সময় স্বপনের মোটরসাইকেল চালিয়ে তাকে নিয়ে বাড়ি ফিরছিল সিফাত। ফেরার পথে রাত সাড়ে ১১টার দিকে তাদের মোটরসাইকেল কাচারীপাড়া বাজার সংলগ্ন সেলিম প্রামাণিকের বাড়ির সামনে পৌঁছালে কয়েকজন তাদের পথরোধ করে। এরপর চালকের আসনে বসা সিফাতকে ধারালো অস্ত্র, হাতুরি দিয়ে আঘাত করে তারা। এ সময় স্বপন পালিয়ে যায়।

সিফাতের চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে প্রথমে পাংশা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। পরে তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। বুধবার রাত ৮টার দিকে চিকিৎসাধীন ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।

পাংশা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ শাহাদাৎ হোসেন জানান, এখনও ওই ঘটনায় পাংশা থানায় কোনো মামলা দায়ের করা হয়নি। তবে পুলিশ ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে সেলিম প্রামাণিক এবং তার সহযোগী হেলাল প্রামানিককে (৩৫) আটক করেছে। সিফাতের পরিবারের সদস্যরা থানায় মামলা দায়ের করলেই আটককৃতদের ওই মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা