kalerkantho

রবিবার। ৩ মাঘ ১৪২৭। ১৭ জানুয়ারি ২০২১। ৩ জমাদিউস সানি ১৪৪২

শৈত্যপ্রবাহ দিয়ে পৌষের বিদায়

থাকবে তিন-চার দিন

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৪ জানুয়ারি, ২০২১ ০১:১৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শৈত্যপ্রবাহ দিয়ে পৌষের বিদায়

শৈত্যপ্রবাহের মাধ্যমে বিদায় নিচ্ছে পৌষ। আর আগমন ঘটছে মাঘের। চলতি মৌসুমে পৌষের শুরুতে শীতের বেশ প্রকোপ ছিল। তবে গত কয়েক দিন ছিল অনেকটাই গরমের আবহ। পৌষের বিদায়বেলায় আবার এসেছে শীত। দেশে কয়েকটি জেলার ওপর দিয়ে বইছে শৈত্যপ্রবাহ। তা থাকতে পারে আরো তিন থেকে চার দিন।

আবহাওয়াবিদ আবদুল মান্নান কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘আগামী কয়েক দিনে শৈত্যপ্রবাহের এলাকা ও তীব্রতা বাড়বে। জানুয়ারি মাসজুড়েই সাধারণত শীতকাল। ফলে আবারও শৈত্যপ্রবাহ আসতে পারে। চলমান শৈত্যপ্রবাহ আরো তিন-চার দিন অব্যাহত থাকতে পারে।’

জানা যায়, তাপমাত্রা ৮ থেকে ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে থাকলে তা মৃদু শৈত্যপ্রবাহ, ৬ থেকে ৮ ডিগ্রির মধ্যে থাকলে মাঝারি এবং এর নিচে নামলে তা তীব্র শৈত্যপ্রবাহ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়। দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল গতকাল নওগাঁর বদলগাছীতে, ৭.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর ঢাকায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৫.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

গতকাল বুধবার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়, রাজশাহী, পাবনা, নওগাঁ, দিনাজপুর, সৈয়দপুর ও কুড়িগ্রাম অঞ্চলের ওপর দিয়ে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। তা অব্যাহত ও বিস্তার লাভ করতে পারে। অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারা দেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত সারা  দেশে মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা থাকতে পারে।

নওগাঁ প্রতিনিধি জানান, গত কয়েক দিন তাপমাত্রা সহনীয় থাকলেও হঠাত্ করে হিমেল হাওয়ায় জেলাজুড়ে শুরু হয়েছে মাঝারি মাত্রার শৈত্যপ্রবাহ। গতকাল সারা দিন জেলায় সূর্যের দেখা মেলেনি। শীতবস্ত্রের অভাবে নিম্ন আয়ের মানুষ কষ্টে পড়েছে।

বদলগাছী আবহাওয়া অফিসের টেলিপ্রিন্টার অপারেটর রিমন আহমেদ জানান, সবচেয়ে শীতলতম মাস জানুয়ারির প্রায় মাঝামাঝি এসে মাঝারি ধরনের শৈত্যপ্রবাহ শুরু হয়েছে। তা আরো দুই-তিন দিন থাকতে পারে। তবে জেলায় বৃষ্টিপাতের কোনো পূর্বাভাস নেই।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা