kalerkantho

রবিবার । ১০ মাঘ ১৪২৭। ২৪ জানুয়ারি ২০২১। ১০ জমাদিউস সানি ১৪৪২

কাজল কিনতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার, ৬ মাসের অন্তঃসত্ত্বা কিশোরী

অনলাইন ডেস্ক   

১৩ জানুয়ারি, ২০২১ ২১:৫৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কাজল কিনতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার, ৬ মাসের অন্তঃসত্ত্বা কিশোরী

কাজল কিনতে গিয়ে ১৩ বছরের এক কিশোরী ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় গতকাল রাতে ওই কিশোরীর বাবা থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। মামলার পর অভিযুক্ত আলাউদ্দিনকে (৪৮) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তিনি জেলার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার বাতিসা ইউনিয়নের আটগ্রামের মৃত আক্কাস আলীর ছেলে।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, গত বছরের ১৮ জুলাই উপজেলার বাতিসা ইউনিয়নের আটগ্রামে আলাউদ্দিনের কসমেটিকসের দোকানে কাজল কিনতে যায় ওই কিশোরী ও তার ছোট বোন। পরে আলাউদ্দিন কিশোরীর ছোট বোনকে একটি চুলের ব্যান্ড হাতে দিয়ে বাড়ি পাঠিয়ে দিয়ে দোকানের দরজা বন্ধ করে দেয়। পরে ওই কিশোরীকে একাধিকবার ধর্ষণ করেন তিনি। এ কথা কাউকে জানালে তাকে হত্যা করা হবে বলেও হুমকি দেন।

সম্প্রতি ওই কিশোরীর শরীরে পরিবর্তন আসলে গত ১১ জানুয়ারি চৌদ্দগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনা হয়। এ সময় চিকিৎসক জানান, ওই কিশোরী ২৪ সপ্তাহের অন্তঃসত্ত্বা। 

এরপর ওই কিশোরী ঘটনা খুলে বললে কিশোরীর পিতা বাদী হয়ে মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) রাতে থানায় ধর্ষণের অভিযোগে মামলা দায়ের করেন।

চৌদ্দগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শুভরঞ্জন চাকমা জানান, অভিযুক্ত আলাউদ্দিনকে গ্রেপ্তারের পর হাজতে পাঠানো হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা