kalerkantho

শুক্রবার । ১৩ ফাল্গুন ১৪২৭। ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১। ১৩ রজব ১৪৪২

ভাঙা ব্রিজে দুর্ভোগ চরমে

কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি   

৬ জানুয়ারি, ২০২১ ১৯:১৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভাঙা ব্রিজে দুর্ভোগ চরমে

কেশবপুরের কন্দর্পপুর ও ভালুকঘরে দুটি ব্রিজ ভেঙে যাওয়ায় জনদুর্ভোগ বেড়েছে। মালামাল পরিবহন করতে না পারায় ওই সড়কে চলাচল করা মানুষকে পড়তে হচ্ছে বিপাকে। ঝুঁকি নিয়ে চলাচলের সময় অনেকেই দুর্ঘটনার শিকার হলেও কর্তৃপক্ষ এখনও ভাঙা অংশ মেরামত করেননি।

কেশবপুরের কন্দর্পপুর-বড়েঙ্গা সড়কের নতুন খালের ওপর এবং মঙ্গলকোট-সরসকাটি সড়কের ভালুকঘর এলাকার গণির মোড়ের পাশে ব্রুজ দুটির মাঝখানে ভেঙে গেছে। এলাকাবাসীসহ ওই সড়ক দিয়ে চলাচলকারী মানুষেরা দ্রুত ব্রিজ দুটি সংস্কারের দাবি জানিয়েছেন।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার মঙ্গলকোট ইউনিয়নের কন্দর্পপুর-বড়েঙ্গা সড়কের সীমান্তবর্তী এলাকার ব্রিজটি ছয় মাস পূর্বে ভেঙে যায়। ভাঙা ব্রিজের উপর দিয়েই এলাকার মানুষকে ঝুঁকি নিয়েই যাতায়াত করতে হচ্ছে। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি অবহিত করেও কোনো কাজ হয়নি। 

অপরদিকে মঙ্গলকোট-সরসকাটি সড়কের সাতবাড়িয়া ইউনিয়নের ভালুকঘর এলাকার গণির মোড়ের পাশে ১০ দিন আগে ভারি বালু বোঝাই ট্রাক যাওয়ার সময় ওই ব্রিজের একটি অংশ ভেঙে পড়ে। বর্তমানে গুরুত্বপূর্ণ এ সড়ক দিয়ে যানবাহন চলাচলে ব্যাপক অসুবিধা দেখা দিচ্ছে। ব্রিজটি প্রায় তিন বছর আগে নির্মাণ করা হয়।

কন্দর্পপুর এলাকার ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য মুক্তাহিরুল হক বলেন, গত ছয় মাস আগে ব্রিজটি ভেঙে গেলেও সংস্কারের কোনো উদ্যোগ গ্রহণ করেনি কর্তৃপক্ষ।

ভালুকঘর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আজিজুর রহমান জানান, সম্প্রতি রাতের বেলায় ১০ চাকার বালু ভর্তি ট্রাক যাওয়ার সময় ব্রিজটির একটি অংশ ভেঙে পড়ে। গুরুত্বপূর্ণ এ ব্রিজটি সংস্কার না করলে ভোগান্তি বাড়বে। 

উপজেলা প্রকৌশলী মো. সায়ফুল ইসলাম মোল্লা বলেন, ব্রিজ দুটির একাংশ ভেঙে যাওয়ার খবর পেয়েছি। দ্রুত ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করে ওই ব্রিজ দুটির ভেঙে পড়া অংশ সংস্কার করার উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা