kalerkantho

সোমবার । ১৬ ফাল্গুন ১৪২৭। ১ মার্চ ২০২১। ১৬ রজব ১৪৪২

বাগেরহাটে হত্যা মামলা, নয়াদিল্লিতে আসামি গ্রেপ্তার

শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি   

২৭ ডিসেম্বর, ২০২০ ১৫:০১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাগেরহাটে হত্যা মামলা, নয়াদিল্লিতে আসামি গ্রেপ্তার

ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি মাসুম হাওলাদার

ভারতের নয়াদিল্লি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বাগেরহাটের শরণখোলায় চাঞ্চল্যকর জাহিদুল (২৫) হত্যা মামলার ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি মাসুম হাওলাদারকে। প্রায় ১৫ বছর পলাতক থাকার পর ভারতের ইন্টারপোলের মাধ্যমে গত ২৪ ডিসেম্বর (বৃহস্পতিবার) তাকে গ্রেপ্তার করে নয়াদিল্লি পুলিশ। রবিরার সকালে শরণখোলা থানা পুলিশ ও নিহতরে পরিবার এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

সকল আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করে আসামি মাসুম হাওলাদারকে দেশে ফিরিয়ে আনার প্রক্রিয়া চলছে বলে জানিয়েছে শরণখোলা থানা ওসি। ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত মাসুম শরণখোলা উপজেলার বাধাল গ্রামের আদম আলী হাওলাদারের ছেলে।

জানা গেছে, উপজেলার খোন্তাকাটা ইউনিয়নের নলবুনিয়া গ্রামের ছিদ্দিক তালুকদারের ছেলে জাহিদুল ইসলাম স্থানীয় নলবুনিয়া বাজারে মোবাইল ফোন ও ফ্ল্যাক্সি লোডের ব্যবসা করতেন। ২০০৫ সালের ৬ জুন রাতে ওই দোকান থেকে পরিকল্পিতভাবে ডেকে নিয়ে জবাই করে ও পুরুষাঙ্গ কেটে হত্যার পর পার্শ্ববর্তী ধান ক্ষেতে ফেরে রাখা হয়। পরদিন সকালে পুলিশ জাহিদুলের লাশ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় পাঁচজনকে আসামি করে নিহতের বাবা বাদী হয়ে শরণখোলা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় পাঁচ আসামির মধ্যে মাসুম হাওলাদারকে ফাঁসির আদেশ এবং বাকী চারজনকে বেকসুর খালাস প্রদান করেন আদালত।

নিহতের মা মমতাজ বেগম জানান, এভাবে আর যেনো কোনো মায়ের কোল খালি না হয়। ছেলে হত্যার আসামি দীর্ঘবছর পর গ্রেপ্তার হওয়ায় তিনি খুশি হয়েছেন। এখন তার দ্রুত ফাঁসি দেখতে চান তিনি।  

শরণখোলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাইদুর রহমান বলেন, আসামিকে দেশে ফিরিয়ে আনার প্রক্রিয়া চলছে। এ ব্যপারে আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন না হওয়া পর্যন্ত বিস্তারিত তথ্য প্রকাশ করা যাচ্ছে না।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা