kalerkantho

রবিবার। ২২ ফাল্গুন ১৪২৭। ৭ মার্চ ২০২১। ২২ রজব ১৪৪২

আপিলেও বিএনপির প্রার্থিতা বাতিল, বিনা ভোটে নৌকার জয়

ভাঙ্গুড়া (পাবনা) প্রতিনিধি    

২৭ ডিসেম্বর, ২০২০ ১৩:৪৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আপিলেও বিএনপির প্রার্থিতা বাতিল, বিনা ভোটে নৌকার জয়

আওয়ামী লীগের প্রার্থী ও বর্তমান মেয়র গোলাম হাসনাইন রাসেল

পাবনার ভাঙ্গুড়া পৌরসভা নির্বাচনে ভোটগ্রহণের ২০ দিন বাকি থাকতেই বিনা ভোটে মেয়র নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী ও বর্তমান মেয়র গোলাম হাসনাইন রাসেল। আজ রবিবার জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে বিএনপির প্রার্থী আব্দুল কাদেরের মনোনয়নপত্র পুনরায় যাচাই-বাছাইয়ে বাদ পড়লে একক প্রার্থী হওয়ায় রাসেলের নির্বাচিত হওয়ার পথে আর কোনো বাধা রইল না। এদিকে খবরটি ছড়িয়ে পড়লে পৌর এলাকার সাধারণ ভোটারদের মধ্যে নির্বাচনী আমেজে ভাটা পড়লেও আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে আনন্দের বন্যা বয়ে যাচ্ছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, আগামী ১৬ জানুয়ারি ভাঙ্গুড়া পৌরসভায় ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে মেয়র পদে বর্তমান মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম হাসনাইন রাসেল (নৌকা মার্কা)  এবং উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য আব্দুল কাদের (ধানের শীষ) ২০ ডিসেম্বর রিটার্নিং অফিসারের কাছে মনোনয়নপত্র জমা দেন। পরে ২২ ডিসেম্বর যাচাই-বাছাইয়ে আব্দুল কাদেরের মনোনয়নপত্র বাতিল হয়ে যায়।

এতে আব্দুল কাদের গত শুক্রবার জেলা প্রশাসকের কাছে প্রার্থিতা ফিরে পেতে আপিল করেন। রবিবার জেলা প্রশাসকের আপিল শুনানিতেও ভাঙ্গুড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও রিটার্নিং অফিসার কর্তৃক আব্দুল কাদেরের মনোনয়নপত্র বাতিলের আগের সিদ্ধান্ত বহাল থাকে। ফলে ভাঙ্গুড়া পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে একক প্রার্থী হওয়ায় আওয়ামী লীগের প্রার্থী গোলাম হাসনাইন রাসেলের বিনা ভোটে নির্বাচিত হওয়ার পথে আর কোনো বাধা রইল না। 

প্রার্থিতা বাতিলের বিষয়ে বিএনপির প্রার্থী আব্দুল কাদের বলেন, দলের কয়েকজন কর্মীকে মনোনয়নপত্র ও হলফনামা পূরণের জন্য দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু তাদের অবহেলার কারণে বিভিন্ন তথ্য ভুলভাবে পূরণ করায় মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছে। 

এ বিষয়ে রিটার্নিং অফিসার ও ভাঙ্গুড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ আশরাফুজ্জামান বলেন, মনোনয়ন ফরম ও হলফনামায় বিএনপির প্রার্থী আব্দুল কাদেরের প্রস্তাবকারী ও সমর্থনকারীর নাম এবং স্বাক্ষরে গরমিল, বিভিন্ন ফরমে ভোটার নম্বর ও মায়ের নামের গরমিল এবং শিক্ষাগত যোগ্যতায় হলফনামা এবং নির্বাচন কমিশনের ওয়েবসাইটে অমিল হওয়ায় যাচাই-বাছাইয়ে মনোনয়নপত্র বাতিল হয়। পরবর্তী সময়ে আপিল করলেও রিটার্নিং অফিসারের পূর্বসিদ্ধান্ত বহাল থাকায় চূড়ান্তভাবে বিএনপির প্রার্থী নির্বাচন থেকে বাদ পড়ল। এতে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের একক প্রার্থী থাকায় আর ভোট হবে না। শুধু কাউন্সিলর পদে ভোট নেওয়া হবে। যেকোনো সময় সরকারিভাবে ঘোষণা করা হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা