kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১২ ফাল্গুন ১৪২৭। ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১। ১২ রজব ১৪৪২

ঔষধি গাছ ভাঙা নিয়ে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, অস্ত্রের ঝনঝনানি

সরিষাবাড়ী (জামালপুর) প্রতিনিধি   

১৯ ডিসেম্বর, ২০২০ ২০:০২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ঔষধি গাছ ভাঙা নিয়ে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, অস্ত্রের ঝনঝনানি

জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে ঔষধি গাছ ভাঙাকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের বাড়ি ঘরে হামলা, ভাঙচুর ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে উভয় পক্ষে অন্তত ১০ জন আহত হয়েছে। শুক্রবার রাত ৭টার দিকে উপজেলার ডোয়াইল ইউনিয়নের রাজিব দিয়ার গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

সংঘর্ষে উভয় পক্ষের আহতরা হলেন- আশিক মিয়া (১৪), মিল্টন মিয়া (১৬), নুরজাহান বেওয়া (৮০), মোফাজ্জল হোসেন (৫০), কহিনুর বেগম (৩৫), রেখা খাতুন (৩২), রানা মিয়া (২৫), আনেয়ার হোসেন (৪০) ও শেফালী আক্তার। এদের মধ্যে গুরুতর আহত নুরজাহান বেওয়া ও আনোয়ার হোসেনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

অভিযোগে জানা যায়, কবিরাজ আনোয়ার হোসেন ভুল চিকিৎসা দিয়ে এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে কবিরাজি করে আসছেন। কবিরাজের এসব অপকর্মকাণ্ডের প্রতিবাদ করায় প্রতিবেশী জিন্নত আলী সঙ্গে বিরোধ চলে আসছে কবিরাজ আনোয়ার হোসেনের। শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে জিন্নত আলী গরুর খাবার খড় নিয়ে বাড়ি যাওয়ার পথে রাস্তার পাশে কবিরাজের ঔষধি গাছে কিছু খড় লেগে যায়। এ নিয়ে জিন্নত আলী ও কবিরাজ আনোয়ারের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায় উভয়ের সমর্থকের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষে লিপ্ত হন। এ সময় ক্ষিপ্ত হয়ে কবিরাজ আনোয়ার হোসেন তার সমর্থকরা লাঠিসোটা ও ধারালো অস্ত্র নিয়ে জিন্নত আলীর বাড়ি ঘরে হামলা চালিয়ে নারী-পুরুষদের মারধর করে। পরে জিন্নত আলীর সমর্থকরা পাল্টা হামলা চালিয়ে আনোয়ারের বাড়ি ঘরে হামলা চালিয়ে একটি রান্না ঘর ভাঙচুর করে।

এ ব্যাপারে সরিষাবাড়ী থানার ওসি আবু মো ফজলুল করীম কালের কণ্ঠকে জানান, সংঘর্ষের ঘটনায় কেউ অভিযোগ এখনো দেয়নি। অভিযোগ পেলে তদস্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা