kalerkantho

রবিবার । ১০ মাঘ ১৪২৭। ২৪ জানুয়ারি ২০২১। ১০ জমাদিউস সানি ১৪৪২

মির্জা আজম বললেন

'যুদ্ধাপরাধী ও তাদের সন্তানরা ধর্ম ব্যবসার নামে মানুষকে বিভ্রান্ত করছে'

জামালপুর প্রতিনিধি   

৫ ডিসেম্বর, ২০২০ ২১:১২ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



'যুদ্ধাপরাধী ও তাদের সন্তানরা ধর্ম ব্যবসার নামে মানুষকে বিভ্রান্ত করছে'

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী মির্জা আজম এমপি বলেছেন, মুক্তিযুদ্ধে পরাজিত যুদ্ধাপরাধী, রাজাকার, আল বদর, আল সামস ও তাদের সন্তানরা ধর্ম ব্যবসার নামে দেশের মানুষকে বিভ্রান্ত করছে। তারা বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য স্থাপনে বাঁধা দিচ্ছে। বাংলাদেশ ও বঙ্গবন্ধুর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রকারী স্বাধীনতাবিরোধীদের মুক্তিযুদ্ধের চেতনা দিয়েই প্রতিহত করা হবে।  

তিনি আজ শনিবার বিকেলে জামালপুরের ইসলামপুর উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ইসলামপুর আসনের আওয়ামী লীগ দলীয় সংসদ সদস্য ও সদ্য নিযুক্ত ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খানের গণ-সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। ইসলামপুর উপজেলা আওয়ামী লীগ এ সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।  

মির্জা আজম আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতাসীন হওয়ার পর থেকেই আমরা জামালপুরের এমপিরা টিম ওয়ার্ক করে বারবার নৌকার বিজয়সহ জামালপুর জেলার উন্নয়নে সফল হয়েছি। আমাদের উন্নয়নের নৌবহরে সদ্য যুক্ত হয়েছেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান।

তিনি বলেন, আমাদের সকল উন্নয়ন ধুলিস্যাৎ করে দেয় রাক্ষুসী যমুনা নদী। এই অঞ্চলের মানুষদের বন্যা ও ভাঙন থেকে রক্ষা করতে যমুনার পাড় ঘেষে দেওয়ানগঞ্জ থেকে সরিষাবাড়ীর পিংনা পর্যন্ত ১১২ কিলোমিটার দীর্ঘ বাঁধ কাম সড়ক নির্মাণের জন্য পাঁচ হাজার কোটি টাকার প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে। নতুন প্রতিমন্ত্রীসহ সবাইকে সাথে নিয়ে জামালপুরকে দরিদ্রতম জেলা থেকে উন্নত জেলায় রূপান্তরের জন্য কাজ করে যাবো। মো. ফরিদুল হক খানকে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী নিযুক্ত করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তিনি।

ইসলামপুর উপজেলা আওয়ামী লীগে সহসভাপতি আব্দুল লতিফ সরকারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত গণসংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সংবধিত অতিথির বক্তব্য রাখেন নতুন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান। ইসলামপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. আব্দুস সালামের সঞ্চালনায় এতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. মুরাদ হাসান, জামালপুর সদর আসনের এমপি প্রকৌশলী মো. মোজাফফর হোসেন, সংরক্ষিত মহিলা এমপি বেগম হোসনে আরা, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য মারুফা আক্তার পপি, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুহাম্মদ বাকী বিল্লাহ, সহ-সভাপতি জি এস এম মিজানুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক ফারুক আহাম্মেদ চৌধুরী, ইসলামপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এস এম জামাল আব্দুন নাছের, ইসলামপুর পৌরসভার মেয়র আব্দুল কাদের শেখ প্রমূখ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা