kalerkantho

বুধবার। ৬ মাঘ ১৪২৭। ২০ জানুয়ারি ২০২১। ৬ জমাদিউস সানি ১৪৪২

হাটহাজারীতে বৈদ্যুতিক তারের ফাঁদে পড়ে দুজনের মৃত্যু

হাটহাজারী (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি   

৫ ডিসেম্বর, ২০২০ ০০:৪০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



হাটহাজারীতে বৈদ্যুতিক তারের ফাঁদে পড়ে দুজনের মৃত্যু

হাটহাজারী উপজেলাধীন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন ১ নম্বর দক্ষিণ পাহাড়তলী ওয়ার্ডের ঠান্ডাছড়ি পাহাড়ী এলাকায় বৃহস্পতিবার বৈদ্যুতিক তারের পাতানো ফাঁদে পড়ে নজরুল ইসলাম (৪৫) ও নিজাম উদ্দীন (৫৫) নামে দুজনের মৃত্যু হয়েছে।

মামলার অভিযোগে প্রকাশ এ দুজনকে বৈদ্যুতিক ফাঁদে  ফেলে হত্যা করা হয়েছে। হাটহাজারী মডেল থানা পুলিশ বৃহস্পতিবার রাতে দুজনের লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছে। শুক্রবার (৪ ডিসেম্বর) বিকালে নিজামের লাশ দক্ষিণ পাহাড়তলী ওয়ার্ডের ঠান্ডাছড়িতে এবং নজরুলের লাশ পার্শ্ববর্তী সীতাকুন্ড উপজেলায় দাফন করা হয়। এ ব্যাপারে হাটহাজারী মডেল থানায় মামলা হয়েছে।

পুলিশ ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, ঠান্ডাছড়ি পাহাড়ে বৈদ্যুতিক তারের পাতানো ফাঁদে ফেলে দুজনকে হত্যা করেছে স্থানীয় সেকান্দর কলোনির বাসিন্দা আবু সাইয়িদ ও তার সহযোগীরা। তারা জানায়, পাহাড়ের ফসলি জমির চারপাশে বৈদ্যুতিক তারের ফাঁদ পেতে দীর্ঘদিন ধরে বন্যপ্রাণী শিকার করে আসছিল অভিযুক্তরা। 

এ নিয়ে প্রায় প্রতিবাদ করে আসছিল নজরুল ও নিজামসহ স্থানীয়রা। এ বিষয় নিয়ে বৈদ্যুতিক তারের ফাঁদকারীদের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হতো প্রায় সময়। এক পর্যায়ে ঘটনার এক দিন আগে জমির ধান দেওয়া নিয়ে নিজামকে মারধরও করেন আবু সাইয়িদ ও তার সহযোগীরা।

নিহত নজরুলের গ্রামের বাড়ি সিতাকুন্ড উপজেলায়, থাকতেন ১ নম্বর দক্ষিণ পাহাড়তলী ওয়ার্ডের ঠান্ডাছড়ি এলাকায়। নিজাম উদ্দীনের গ্রামের বাড়ি নোয়াখালী জেলার চরমহিউদ্দিনের চরজব্বার এলাকায় হলেও দীর্ঘ ২২ বছর থেকে পরিবার নিয়ে ১নং দক্ষিণ পাহাড়তলী ওয়ার্ডের ঠান্ডাছড়ি পাহাড়ী এলাকায় বসবাস করে আসছিল।

এ ব্যাপারে হাটহাজারী মডেল থানার ওসি রফিকুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে স্থানীয় সাংবাদিকদের বলেন, এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। আবু সাইয়িদ পলাতক রয়েছে উল্লেখ করে ওসি বলেন, তাকেসহ অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা