kalerkantho

বুধবার। ৬ মাঘ ১৪২৭। ২০ জানুয়ারি ২০২১। ৬ জমাদিউস সানি ১৪৪২

বিধবার সম্বল গরু-বাছুর চুরি

মান্দা (নওগাঁ) প্রতিনিধি   

৪ ডিসেম্বর, ২০২০ ১৭:১৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিধবার সম্বল গরু-বাছুর চুরি

স্বামীকে হারিয়েছেন চার বছর আগে। নিজের কোনো সন্তান নেই। স্থানীয়দের সহযোগিতায় কালীমন্ডপের সম্পত্তিতে বসতঘর নির্মাণ করে দিনযাপন করছেন বিধবা গীতা রানী প্রামাণিক। সেখানেই তার সম্বল বলতে একটি গাভী, একটি বাছুর ও একটি ছাগল ছিল। তাও চোরে নিয়ে গেছে। বেঁচে থাকার সম্বলটুকু হারিয়ে দিশেহারা গীতা রানী। 

অসহায় এই নারী নওগাঁর মান্দা উপজেলার তেঁতুলিয়া ইউনিয়নের পিড়াকৈর গ্রামের মৃত অরুণ চন্দ্র প্রামাণিকের স্ত্রী। বয়স সত্তর ছুঁই ছুঁই করলেও তার কপালে জোটেনি সরকারি কোনো সহায়তা। বৃহস্পতিবার রাতে চুরি যাওয়া গাভী-বাছুর ও একটি ছাগলই ছিল তার জীবন জীবিকার একমাত্র সম্বল। এটি হারিয়ে দিশেহারা গীতা রানী এখন শুধুই বিলাপ করছেন।

স্থানীয়রা জানান, গীতা রানী তার বিধবা মা কুটিবালাকে নিয়ে একত্রে বসবাস করেন। বৃহস্পতিবার মাকে রেখে এক আত্মীয়ের বাড়িতে বেড়াতে যান। ওইদিন প্রতিবেশী গৃহবধূ শ্যামলী রানী গরু-বাছুর সন্ধ্যায় গোয়ালে তোলেন। কিন্তু সকালে গোয়াল থেকে গাভীটি বের করতে গিয়ে দেখেন বিধবার সম্বল চুরি হয়ে গেছে।

গীতা রানী জানান, গাভীর দুধ ও গোবর থেকে তৈরি কাড়িয়া (জ্বালানী) বিক্রির টাকায় কোনো রকমে চলে সংসার। এ ছাড়া প্রতিবেশীরাও তাকে বিভিন্নভাবে সহায়তা করেন। মন্ডপের সম্পত্তিতে বসবাস করলেও এখন পর্যন্ত সরকারি কোনো সহায়তা জোটেনি তার।

মান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহিনুর রহমান জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে তদন্ত করা হয়েছে। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা