kalerkantho

বুধবার । ১৩ মাঘ ১৪২৭। ২৭ জানুয়ারি ২০২১। ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪২

ফাঁদে ফেলে নারীদের সর্বনাশ করে অর্থ হাতিয়ে নেওয়াই তার কাজ!

আগৈলঝাড়া (বরিশাল) প্রতিনিধি   

৩ ডিসেম্বর, ২০২০ ২১:৫৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ফাঁদে ফেলে নারীদের সর্বনাশ করে অর্থ হাতিয়ে নেওয়াই তার কাজ!

আবুল বাশার তারেক (৩৮)।

বরিশালের আগৈলঝাড়ায় পরকিয়া প্রেমিকার বাড়িতে রাত্রিযাপনকালে প্রেমিককে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার রাতে এই ঘটনা ঘটে। আটকের পর বের হয়ে এসেছে আসল তথ্য। তার দ্বিতীয় স্ত্রী জানিয়েছেন, প্রতারণার ফাঁদে ফেলে নারীদের সর্বনাশ করে অর্থ হাতিয়ে নেওয়াই তার কাজ। 

এদিকে, থানা ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার অশোকসেন গ্রামের পরকিয়া প্রেমিকার বাড়িতে মঙ্গলবার রাতে রাত্রিযাপন করে বরিশালের বিমানবন্দর থানা এলাকার রহমতপুর গ্রামের বাসিন্দা শাহজাহান হাওলাদারের ছেলে আবুল বাশার তারেক (৩৮)। ওই প্রেমিকার সঙ্গে ঘরে এক বিছনায় রাত্রিযাপন করার সময় এলাকাবাসী আগৈলঝাড়া থানা পুলিশকে খবর দেয়। পরে থানা পুলিশের এসআই মিজান প্রেমিক আবুল বাশার তারেককে আটক করে থানায় নিয়ে যান। 

আবুল বাশার তারেক একাধিক বিয়ে করেছেন। প্রতারণার ফাঁদে ফেলে নারীদের সর্বনাশ করে অর্থ হাতিয়ে নেওয়াই তার কাজ। এমনটাই জানিয়েছে তারেকের দ্বিতীয় স্ত্রী (দ্বিতীয় স্ত্রী নাম প্রকাশ না করার শর্তে এই কথা বলেন)। তারেকের দ্বিতীয় স্ত্রী উজিরপুর উপজেলার বাসিন্দা। তিনি তারেকের বিরুদ্ধে বরিশাল বিমানবন্দর থানায় যৌতুক ও নারী নির্যাতনের মামলা করেছেন। 

আগৈলঝাড়া থানার ওসি (তদন্ত) মো. মাজাহারুল ইসলাম জানান, তারেককে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। মেয়েকে (প্রেমিকাকে) বিয়ে করবে, এমন শর্তে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয় বলে জানান মো. মাজাহারুল ইসলাম।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা