kalerkantho

শুক্রবার । ৮ মাঘ ১৪২৭। ২২ জানুয়ারি ২০২১। ৮ জমাদিউস সানি ১৪৪২

ছাত্রলীগ নেতা দিপুকে ফাঁসাতেই ‘ধর্ষণচেষ্টা’ মামলা!

রায়পুরা (নরসিংদী) প্রতিনিধি   

৩ ডিসেম্বর, ২০২০ ১৮:৪৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ছাত্রলীগ নেতা দিপুকে ফাঁসাতেই ‘ধর্ষণচেষ্টা’ মামলা!

ধর্ষণচেষ্টা নয়, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করেই নরসিংদীর রায়পুরা পৌর ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. দিপু মিয়ার বিরুদ্ধে ধর্ষণচেষ্টার মামলা করেন তার চাচাতো ভাইয়ের স্ত্রী। আগেও একবার দিপুর বিরুদ্ধে ওই গৃহবধূ মামলা করেছিল। পরে পারিবারিক সমঝোতাই তা মিটমাট করা হয়।

আজ বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৫টায় রায়পুরা পৌর এলাকার রামনগরহাটি ছাত্রলীগ নেতা দিপুর ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে এক সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য এসব কথা বলেন দিপুর ভগ্নিপতি মো. সজল মিয়া।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরো বলেন, গত ২৬ নভেম্বর ওই গৃহবধূ রায়পুরা থানায় ধর্ষণচেষ্টা মামলা করেন। পরে রাতেই পুলিশ দিপুকে নিজ বাড়ি পৌর এলাকার রামনগরহাটি থেকে আটকের পরদিন আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠায়।

তিনি বলেন, গ্রেপ্তারের আগের দিন দিপুর সঙ্গে তার ভাবির তুচ্ছ বিষয় নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়। পরে ওই গৃহবধূ দিপুকে জুতাপেটাও করেন। এক পর্যায়ে থানায় গিয়ে ধর্ষণচেষ্টা মামলা দায়ের করেন। ধর্ষণচেষ্টার মতো কোনো ঘটনাই ঘটেনি। দিপুর প্রতি ক্ষিপ্ত হয়েই পূর্বপরিকল্পিতভাবে ধর্ষণচেষ্টার মিথ্যা মামলা দেন ওই গৃহবধূ। সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে ওই গৃহবধূর বিরুদ্ধে আইন ব্যবস্থা গ্রহণ এবং দিপুর মুক্তির দাবি জানান তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ছাত্রলীগ নেতা দিপুর বাবা মো. শহীদ মিয়া, চাচা মো. বাচ্চু মিয়া।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা