kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৪ মাঘ ১৪২৭। ২৮ জানুয়ারি ২০২১। ১৪ জমাদিউস সানি ১৪৪২

কালভার্টের গর্তে গরু বোঝাই ট্রাক, নিহত ১

নকলা (শেরপুর) প্রতিনিধি   

১ ডিসেম্বর, ২০২০ ১৭:০৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কালভার্টের গর্তে গরু বোঝাই ট্রাক, নিহত ১

শেরপুর জেলার নকলায় গরুবোঝাই একটি ট্রাক খাদে পড়ে গিয়ে সোরহাব আলী (৬০) নামে নির্মাণকাজের এক পাহারাদার নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় গরুর পাইকার নবী হোসেন (৩২) ও ট্রাকচালক মোখলেছ মিয়া (২৫) আহত হয়ে নকলা হাসপাতালে ভর্তি আছেন। এ দুর্ঘটনায় ১৩টি গরু মারা গেছে।

মঙ্গলবার মধ্যরাতে উপজেলার কুর্শাবাদাগৈড় এলাকায় ঢাকা-শেরপুর মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে স্থানীয় সূত্র জানায়। নিহত সোরহাব আলী উপজেলার কুর্শাবাদাগৈড় এলাকার মৃত সৈয়দ আলীর ছেলে। 

স্থানীয়রা জানায়, ঢাকা-শেরপুর মহাসড়কের দুই পাশে সম্প্রসারণকাজ চলছে। সম্প্রসারণ কাজের অংশ হিসেবে কুর্শাবাদাগৈড় এলাকায় একটি কালভার্ট (ছোট্ট ব্রিজ) নির্মাণকাজ শুরু হয়েছে। কালভার্ট নির্মাণের জন্য রাস্তায় গভীর গর্ত করা হয়েছে। কিন্তু ব্যস্ততম এই রাস্তায় গভীর গর্ত করা হলেও জনগণ ও যানবাহন চলাচলে বাধার সৃষ্টি করতে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে কোনো ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। করা হয়নি কোনো আলোর ব্যবস্থাও। তাই স্বাভাবিক চলাচলের কারণে দ্রুতগামী ট্রাকটি সরাসরি গর্তে পড়ে যায়। এ সময় কালভার্ট নির্মাণকাজের পাহারাদার গরুবোঝাই ট্রাকটির চাকার নিচে পড়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সোমবার রাতে কুড়িগ্রাম থেকে গরু বোঝাই করে রাজধানী ঢাকায় যাওয়ার পথে প্রায় শেষরাতে কুর্শাবাদাগৈড় এলাকায় পৌঁছলে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এতে একজন নিহত, দুজন আহত ও ১৩টি গরু মারা যায়। এ ঘটনায় ট্রাকচালক মোখলেছ মিয়া ট্রাকের ভেতরে আটকা পড়েন। মঙ্গলবার সকালে ফায়ার সার্ভিসের উদ্ধারকর্মীরা এসে ট্রাকের বডি কেটে তাঁকে উদ্ধার করে নকলা হাসপাতালে ভর্তি করেন। এর আগে স্থানীয়রা গরুর পাইকার নবী হোসেনকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে নকলা হাসপাতালে ভর্তি করেন।

নকলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুশফিকুর রহমান জানান, ঘটনাস্থল থেকে সোরহাব আলীর মরদেহ এবং ১৯টি গরু উদ্ধার করে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হেয়েছে। এ বিষয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা